শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:৫৯

ই ন্টারভিউ → সিয়াম আহমেদ

ফিল্ম নিয়ে নতুন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই

ফিল্ম নিয়ে নতুন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই

বর্তমান সময়ের তারুণ্যের ক্রেজ সিয়াম আহমেদ। ‘পোড়ামন-টু’, ‘দহন’ এবং ভাষা আন্দোলনের গল্পে নির্মিত ‘ফাগুন হাওয়ায়’ অনবদ্য অভিনয় দিয়ে মুগ্ধ করেছেন দর্শককে। বর্তমানে চারটি চলচ্চিত্রে অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। এসব চলচ্চিত্র ও সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সিয়ামের সঙ্গে কথা বলেছেন-  পান্থ আফজাল

 

গানবাংলা আয়োজিত ‘মিউজিক ফর পিস’ অনুষ্ঠানে জনপ্রিয় তারকাদের সঙ্গে একমঞ্চে আপনাকেও দেখা গেল। সিনেমার সুদিন ফেরাতে উদ্যোগটি কতখানি কার্যকরী হবে? আসলে দাঁড়ালেই যদি সব কাজ হয়ে যেত, তাহলে তো ভালোই হতো! এর আগেও অনেক মিলনমেলায় এভাবে দেখা হয়েছে। একসঙ্গে কাজ করার কথা বলা হয়েছে; কিন্তু কোনো চেঞ্জ আসেনি। আসলে এই ইন্ডাস্ট্রি চেঞ্জ হোক তা কেউ চান না। তবে তাপস ভাই ও মুন্নী ভাবির এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। তাদের কথায় সবাই যেভাবে সাড়া দিয়েছেন, সেটা আনন্দের বিষয়। তাদের উদ্যোগে যেহেতু মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে পরিবর্তনের সুবাতাস এসেছে, সেহেতু ফিল্ম ইন্ডাস্টি নিয়ে নতুন এই ভাবনা নিয়ে আমি আশাবাদী। আমাদের রুচির পরিবর্তন আসুক, ভালো ভালো কাজ হোক।

 

কোন ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত?

সেলিম ভাইয়ের ‘পাপপুণ্য’। এখন ঢাকায় শুটিং করছি। শুটিং প্রায় শেষের দিকে।

 

এই ছবিতে রয়েছেন অনেক তারকামুখ। তাদের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা কেমন?

যারা কাজ করছেন সবাই খুবই ব্রিলিয়ান্ট। মিমি আপা, বাবু ভাই, চঞ্চল ভাইসহ আরও অনেকেই। যাদের সঙ্গে কাজ করতে পারা আসলেই অনেক সৌভাগ্যের ব্যাপার। সেলিম ভাইয়ের স্টোরি টেলিং, মেকিং সেন্স দুর্দান্ত। ছবিটি নিয়ে অনেক আশাবাদী।

 

‘বিশ্বসুন্দরী’র কাজ কি শেষ হয়েছে?

চয়নিকাদির এই ছবিটির কাজ কিছুটা বাকি রয়েছে। এখন পুরোদমে ‘পাপপুণ্য’ সিনেমা নিয়েই ব্যস্ত রয়েছি। এটির কাজ শেষ হয়ে গেলে এরপর বিশ্বসুন্দরীর কাজে অংশ নেব। কিছুদিন সময় দিলেই কাজটা শেষ হয়ে যাবে।

 

পরীমণি সহশিল্পী হিসেবে কেমন?

এক কথায় অসাধারণ! পরীর সঙ্গে কাজ করে বেশ ইনজয় করেছি। সে অনেক বেশি বন্ধুসুলভ। খুব অল্প সময়ে মানুষকে আপন করে নেওয়ার এক অদ্ভুত ক্ষমতা ওর মাঝে আছে। কাজ করার সময় একবারও মনে হয়নি যে ওর সঙ্গে আমি প্রথম কাজ করছি।

 

‘শান’ ছবির কাজের অগ্রগতি কতখানি?

কিছুটা বাকি রয়েছে; একটু সময় লাগবে।

 

রাফির আরেকটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন...

হুমম...‘স্বপ্নবাজি’। ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে। আশা করছি ইন্টারেস্টিং কিছু একটা হবে।

 

একটি টিভি কমার্শিয়ালে অভিনেতা জাহিদ হাসানের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন। তার সঙ্গে কাজ করতে কেমন লেগেছে?

এটি অমিতাভ ভাইয়ের নির্মাণে কোমল পানীয়র একটি বিজ্ঞাপন। জাহিদ ভাইয়ের সঙ্গে এটি আমার দ্বিতীয় কাজ। এর আগে ‘বিয়াইনসাব’ মিউজিক ভিডিওতে তার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছি। তিনি একজন গ্রেট অ্যাক্টর। তার থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তার সঙ্গে সবসময়ই কাজ করতে চাই।

 

এমন কোনো চরিত্র রয়েছে যেটি রূপায়ণ করার প্রচণ্ড ইচ্ছে রয়েছে?

বলতে গেলে এমন তো অনেক চরিত্রই রয়েছে! তবে শহীদ রুমি চরিত্রটি আমাকে মারাত্মকভাবে আকর্ষণ করে। এ ছাড়াও দেশকে প্রতিনিধিত্ব করে এমন হিরোদের চরিত্র করার ইচ্ছে আছে। যেমন বায়োগ্রাফিক্যাল ফিল্ম হলে মাশরাফি বিন মর্তুজা বা সাকিব আল হাসানের চরিত্র করতে চাই।

 

প্রিয় কোন অভিনেতাকে অনুসরণ করেন?

আমি সালমান শাহর বড় একজন ভক্ত। ফিল্মে আসার ক্ষেত্রে তিনি আমার অনুপ্রেরণা। অন্যদিকে হুমায়ুন ফরীদি একজন জাদুকরী অভিনেতা, যার অভিনয় আমাকে মুগ্ধ করত। আর বর্তমানে পাভেল ভাই (আজাদ আবুল কালাম), চঞ্চল ভাই ও মামুনুর রশীদ স্যারের অভিনয় খুবই পছন্দ করি।

 

অভিনীত কোন চরিত্রটি সবচেয়ে প্রিয়?

দহন ছবির ‘তুলা’ চরিত্র। এই চরিত্রটি করা ছিল আমার কাছে ভীষণ কঠিন। এটির জন্যে অনেক পরিশ্রম করেছিলাম।


আপনার মন্তব্য