শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ২২:০৪

ইন্টারভিউ → পরীমণি

‘নাই’ শব্দটা নাই করে দিন

ঢাকাই চলচ্চিত্রের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমণি। প্রায়ই উত্তাপ ছড়ান ফেসবুকে। এই ইস্যুতেও আলোচনা দীর্ঘায়িত হয় তাকে ঘিরে। দীর্ঘদিন পর বড় পর্দায় উঠতে যাচ্ছে তার ‘বিশ্বসুন্দরী’। এই ছবি ও সমসাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে পরীমণির সঙ্গে কথা বলেছেন -শামছুল হক রাসেল

‘নাই’ শব্দটা নাই করে দিন

দীর্ঘ বিরতির পর বড় পর্দায় উঠছে আপনার ছবি, অনুভূতিতে কোনো পার্থক্য?

না! বিরতির জন্য কোনো অনুভূতির ব্যাপার ঘটছে না বরং একটা দারুণ কাজ দর্শকদের দিতে পারছি, এর আনন্দ অপরিসীম!

 

এবার আসছেন সিয়ামের সঙ্গে...

হ্যাঁ, সিয়াম-পরীকে দর্শক একসঙ্গে দেখবে এই প্রথমবার! আমাদের এই রসায়নটা পর্দায় দেখার জন্য নিজেরই তর সইছে না একদম। হা. হা.. হা...। আমরা কিন্তু ভীষণ জমিয়ে কাজটি করেছি। বাকিটা সময় হলেই দর্শকরা দেখবেন।

 

 ফেসবুকে আপনার উষ্ণ -উত্তাপ ছবি দেখে অনেকেই বলেন এটা উচ্ছৃঙ্খলতার প্রতিচ্ছবি।  এটাকে কীভাবে দেখছেন?

দেখি না! আমি দেখাই। লোকে দেখে। এখন কীভাবে দেখে এটা তাদের ব্যাপার! আমি কীভাবে দেখতে চাই এটা আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ফেসবুকটা আমি নিজ পছন্দে পরিচালনা করতে ভালোবাসি। এটা একান্তই ব্যক্তিগত ইস্যু।

 

ভক্তদের অভিযোগ, আপনি যত দ্রুত আলোচনায় এসেছিলেন তাদের মনে ততটা দাগ কাটতে পারেননি।

দাগ না কাটলে তাদের কেন ভক্ত বলছেন! তারা কেউ নয়। আর যারা কেউ-ই নয়, তাদের জন্য এত ভাবার কি দরকার! আমি আমার কাজ নিয়ে সন্তুষ্ট। আর আমি জানি, ভক্তরা আমাকে নিয়ে কতখানি সন্তুষ্ট।

 

পরপর তিন বছর সর্বাধিক ছবির নায়িকার তকমা লেগেছিল। হঠাৎ এ ধারাবাহিকতায় ভাটা পড়ল কেন?

হা. হা. হা...। এত ছবির নাম মনে রাখতে পারি না তাই!

 

কেউ বলেন, ভালো স্ক্রিপ্ট নেই, কেউবা আবার বলেন বাজেট নেই। ফিল্ম পাড়ার এ দুরবস্থা কাটানো যায় কীভাবে?

শুধু নাই শব্দটা নাই করে দিন। নাই নাই না করে, যা আছে তার দিকেই নজর দিন। সেগুলোকে সঠিক মূল্যায়ন করা শিখলেই অনেক কিছু বদলে যাবে।

 

তা আপনার প্রোডাকশন হাউস সোনার তরী এফডিসিতে ভিড়বে কী?

ওটা এফডিসিরই! দর্শকদের ভিড়ে ভেড়ার অপেক্ষায় মাত্র।

 

 শোনা যাচ্ছে, আপনার হৃদয়ে ফের কেউ রাজত্ব করছেন।

ফের! ফের প্রেম করার কি আছে! প্রেম তো আসবেই! ফিরে ফিরে আসবে। আর আমি-আপনি-আমরা প্রেমে পড়বই। ফিরে ফিরেই পড়ব।


আপনার মন্তব্য