Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২২:৫১

নোয়াখালীতে খোকন, ঢাকায় আব্বাস পটুয়াখালীতে রনির স্ত্রীর ওপর হামলা

সারা দেশে সংঘর্ষ অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক

নোয়াখালীতে খোকন, ঢাকায় আব্বাস পটুয়াখালীতে রনির স্ত্রীর ওপর হামলা
গতকাল হামলার মুখে মির্জা আব্বাস

ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে রাজনৈতিক উত্তাপও ততই বাড়ছে। গতকালও সারা দেশে প্রচারণায় মুখর ছিলেন প্রার্থীরা। তবে ঢাকা, নোয়াখালী, পটুয়াখালী, ভোলাসহ অন্তত ২০ স্থানে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, হামলা, গুলি ও সংঘর্ষের  ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় দুই শতাধিক আহত এবং গ্রেফতার হয়েছে অন্তত অর্ধশত নেতা-কর্মীকে। রাজধানীতে ঢাকা-৮ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের ওপর হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। তার বাসার সামনে থেকে সাতজন নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় পুলিশ। সন্ধ্যায় ঢাকা-৬ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সুব্রত চৌধুরীকেও ধূপখোলা মাঠে ঘেরাও করে কিছু যুবক। নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে জনসভা শেষে ফেরার পথে বিএনপির মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ হন। ভোলার লালমোহন উপজেলায় বিএনপি ও আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মী আহত হন। পটুয়াখালী-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির সহধর্মিণী লুনা আক্তারের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে যুবদল নেতার হাত-পা কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ছাড়া ২০-দলীয় জোট প্রার্থী কর্নেল অলি আহমদের ছেলের হাতের আঙ্গুল কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

ঢাকা : ঢাকা-৮ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের নির্বাচনী গণসংযোগে হামলার ঘটনা ঘটেছে। রাজধানীর সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজার এলাকায় গতকাল দুপুরে দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। তবে কারা এ হামলা চালিয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। গণসংযোগে থাকা বিএনপির এক নেতা জানান, মির্জা আব্বাস শতাধিক নেতা-কর্মীর একটি টিম নিয়ে এলাকায় গণসংযোগ চালাচ্ছিলেন। এ সময় তার গণসংযোগ পরিচালনাকারী টিমটি সেগুনবাগিচা মসজিদ এলাকায় এলে লাঠিসোঁটা নিয়ে একদল যুবক তাদের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় আক্রান্ত হন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তার গায়ের পাঞ্জাবিতে রক্তের দাগ দেখা যায়। পরে কর্মীরা তাকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেন। পরে শাহজাহানপুরে নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা আব্বাস অভিযোগ করে বলেন, ‘আমাকে প্রাণনাশের জন্যই এ হামলা চালানো হয়েছে। আল্লাহর রহমতে নেতা-কর্মীরা ঢাল হিসেবে সামনে দাঁড়ানোয় আমি বেঁচে আছি। আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরাই এ হামলা চালিয়েছে। এতে এনাম, আউয়াল, মাসুদ, শাহাদাতসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ৬০ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। আহত কয়েকজনকে হাসপাতালে নেওয়া হলেও সেখান থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। হামলাকারীদের হাতে লাঠি, লোহার রড, চাপাতি ও আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। আমার বাসার সামনে থেকে আরও আটজনকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় পুলিশ।’ মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমাদের নিয়মতান্ত্রিক নির্বাচনী প্রচারণার কার্যক্রমে আওয়ামী লীগ এভাবে সহিংস আক্রমণ চালাবে আমি ভাবতেও পারিনি। সরকার চায় বিএনপি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াক। কিন্তু শত প্রতিকূলতার মধ্যেও আমরা শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকব ইনশা আল্লাহ। আমি আবারও গণসংযোগে বের হব।’ তিনি বলেন, ‘হামলা-মামলা মোকাবিলা করেই নির্বাচনে এসেছি। এ ধরনের হামলা আমাদের করলে করতে পারে, আমরা বীরের মতো বুকে পেতে নেব। কিন্তু আমাদের পিঠে কোনো আঘাত লাগবে না। আমরা পলায়নপর হব না। বিএনপির নেতা-কর্মীদের পালানোর কোনো সুযোগ নেই। নির্বাচনী প্রচারণায় আমি আবারও নামব।’ এদিকে গতকাল ঢাকা-১৩ (মোহাম্মদপুর-আদাবর-শেরেবাংলানগর) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী আবদুস সালাম গণসংযোগ করেন। তার সহধর্মিণী অধ্যাপিকা ফাতেমা সালাম পৃথকভাবে শতাধিক মহিলা দলের নেতা-কর্মী নিয়ে মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট-সংলগ্ন বিহারি ক্যাম্প ও স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় ধানের শীষে ভোট চেয়ে লিফলেট বিতরণ করেন। ঢাকা-১১ আসনে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী এম এ কাইয়ুমের সহধর্মিণী শামীম আরা বেগম উত্তর বাডা, মধ্যবাড্ডা, লিংক রোড এলাকাসহ ভাটারা এলাকায় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে গণসংযোগ করেন। বেগম খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য ধানের শীষে ভোট প্রার্থনা করেন তিনি। অন্যদিকে ঢাকা-৬ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী গণফোরাম নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত কুমার চৌধুরীকে ঘেরাও করে কয়েকজন যুবক। সন্ধ্যায় রাজধানীর ধূপখোলা মাঠে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে অজ্ঞাত যুবকদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। সেখানে সুব্রত চৌধুরী সামান্য আহত হলে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে রাজধানীর ভাসানটেক থানা বিএনপির সভাপতি গোলাম কিবরিয়া মাখনকে ইব্রাহিমপুর পুলপাড় এলাকা থেকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া হয়েছে বলে তার পরিবার দাবি করেছে। অন্যদিকে ঢাকা-১৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসানের স্ত্রীকে আটক করেছে পল্লবী থানা পুলিশ। তবে ওই থানার এসআই মুন্সি শহীদ বলেছেন, ‘আটক বলা যাবে না। অসুস্থ থাকায় আহসান উল্লাহর স্ত্রী রায়হানা আক্তারকে হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে।’

নোয়াখালী : নোয়াখালীতে নোয়াখালী-১ আসনের বিএনপি প্রার্থী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ সময় বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। গতকাল সোনাইমুড়ী কলেজ মাঠে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ ঘটনায় চার পুলিশসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। গুরুতর অবস্থায় ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, আলাউদ্দিন সুজন, ইকবাল হোসেন রুবেল ও মো. সোহেলকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে নোয়াখালী-১ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী এইচ এম ইব্রাহীম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় বিএনপি নেতা-কর্মীরা আওয়ামী লীগের অফিস ভাঙচুর করে এবং আমাদের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা চালায়।’ জানা গেছে, গতকাল বিকালে গণসংযোগের আয়োজন করে বিএনপি। এ উপলক্ষে সোনাইমুড়ী কলেজ মাঠে বিএনপির কর্মীরা জড়ো হয়। এ সময় আওয়ামী লীগের সঙ্গে বিএনপির ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। পরে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব নোয়াখালী-১ (সোনাইমুড়ী-চাটখিল) আসনের প্রার্থী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন সোনাইমুড়ী বাজারে গণসংযোগ করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। একপর্যায়ে পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ সময় ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন আহত হন।

পটুয়াখালী : প্রচারণা চালানোর সময় পটুয়াখালী-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির স্ত্রী ও বোনকে বহনকারী মাইক্রোবাসে হামলা চালিয়েছেন আওয়ামী লীগের স্থানীয় সমর্থকরা। গতকাল দুপুরে গলাচিপা পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের টিঅ্যান্ডটি এলাকায় হামলার এ ঘটনা ঘটে। এ সময় গোলাম মাওলা রনির স্ত্রী লুনা আক্তার, বোন এবং গলাচিপা পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আবু তালেব মিয়াসহ ছয়জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। প্রত্যক্ষদর্শী গলাচিপা সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু তালেব মিয়ার ছেলে নাসির উদ্দিন জানান, দুপুরে বিএনপির প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির স্ত্রীসহ তার স্বজনরা পৌর শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিএনপি নেতা আবু তালেব মিয়ার বাড়িতে যান। তালেব মিয়াসহ সেখান থেকে মাইক্রোবাসে করে ফেরার পথে টিঅ্যান্ডটি এলাকায় পৌঁছলে ছাত্রলীগ-যুবলীগের কর্মীরা গাড়িটিতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এতে মাইক্রোবাসটি ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ভাঙা কাচের আঘাতে মাইক্রোতে থাকা প্রায় সবাই আহত হন। পরে তার স্ত্রী গলাচিপা থানায় অভিযোগ দিতে গেলেও পুলিশ তা নেয়নি বলে অভিযোগ করেন রনি। এ সময় তার স্ত্রী ও বোনের স্বর্ণালঙ্কার লুট হয়েছে বলে গোলাম মাওলা রনি অভিযোগ করেন। চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে যুবদল নেতার হাত-পা কেটে দিয়েছে একদল সন্ত্রাসী। গতকাল বেলা ২টার দিকে ধানের শীষের প্রার্থী মো. কামাল পাশার ব্যানার লাগানোর সময় দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালায়। এ সময় যুবদল নেতা বেলাল উদ্দিনের হাত-পা কেটে দেয় সন্ত্রাসীরা। তাকে গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এদিকে চট্টগ্রাম-১৪ আসনের কেওচিয়া ইউনিয়নে গণসংযোগ করার সময় গতকাল বেলা দেড়টার দিকে চৌমুহনী সাইক্লোন সেন্টারের সামনে কর্নেল (অব.) অলি আহমদের ছেলে প্রফেসর ওমর ফারুকসহ ঐক্যফ্রন্ট নেতা-কর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

ভোলা : ভোলায় গতকাল দিনভর আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় একটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগসহ দুটি মোটরসাইকেল ও একটি মাইক্রোবাস ভাঙচুর করা হয়েছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ নেতা-কর্মী আহত হন। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত ১০ জনকে লালমোহন হাসপাতালে এবং ৬ জনকে তজুমদ্দিন হাসপাতালে নেওয়া হয়।

চাঁদপুর : চাঁদপুর-২ আসনের বিএনপির প্রার্থী ড. জালাল উদ্দিন গণসংযোগকালে দফায় দফায় হামলা হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন ১০ জন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। গতকাল দুপুরে মতলব উত্তর উপজেলার লুধুয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

কক্সবাজার : কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের বিএনপি প্রার্থী হাসিনা আহমেদের গণসংযোগে হামলা চালিয়েছেন প্রতিপক্ষ নৌকা প্রতীকের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। হামলাকারীরা এ সময় হাসিনা আহমেদের ব্যবহূত গাড়ি ও চারটি মোটরসাইকেলসহ সাতটি গাড়ি ভাঙচুর করেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : জেলার বিভিন্ন স্থানে বিএনপি নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা হয়েছে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। ভাঙচুর করা হয় কয়েকটি মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা। ঘটনার জন্য বিএনপি ছাত্রলীগকে দায়ী করেছে। তবে ছাত্রলীগের দাবি, বিএনপির দলীয় কোন্দলের জন্যই এসব ঘটনা ঘটেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা ও আখাউড়া) আসনে বিএনপির প্রার্থী মুসলিম উদ্দিনের নির্বাচনী পরামর্শ সভায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

খুলনা : খুলনার ফুলতলায় নাশকতার অভিযোগে তিনটি মামলা হয়েছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় দুটি ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। গতকাল বিকালে ফুলতলা থানায় এসব মামলা হয়। এ ঘটনায় জেলা জামায়াতের আমির (উত্তর) ইমরান হোসেনসহ বিএনপি ও জামায়াতের ১২ নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম শফিউল্লাহ আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। যশোর : যশোর-৩ সদর আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিতের দুই পথসভাস্থলে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অমিত বলেন, গতকাল বেলা পৌনে ১১টার দিকে তিনি সদর উপজেলার আরবপুর ইউনিয়নে গণসংযোগ শেষে স্থানীয় কদমতলা মোড়ে পথসভায় অংশ নেন। পথসভা শেষে তিনি এলাকা ত্যাগ করার সময় ১০ জন দুর্বৃত্ত মোটরসাইকেলে এসে তার গাড়ি লক্ষ্য দুটি বোমা ছুড়ে মারে। বাগেরহাট : বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহজাহান বাদল জমাদ্দারকে (৫৫) পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছেন নিজ দলের লোকেরা। শুক্রবার রাতে উপজেলার চালরায়েন্দা-তাফালবাড়ি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় যুবলীগের একটি গ্রুপ হামলা চালিয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভাঙ্গা (ফরিদপুর) : ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়নের খামিনারবাগ গ্রামে শুক্রবার বিকালে আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মাদ শাহিন শেখ শাহিনুরের বাড়িতে বৌভাত অনুষ্ঠানে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মোহাম্মাদ শাহিন শেখ শাহিনুর ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনের সমর্থকদের দায়ী করেছেন। এ ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় মামলা করেছেন মোহাম্মাদ শাহিন শেখ শাহিনুর। কুমিল্লা : জেলার মেঘনা উপজেলার রাধানগরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি পাল্টাপাল্টি হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়কসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। মেঘনা উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক মজিবুর রহমান বলেন, ‘আমার অফিসে ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মিসভা চলছিল। এ সময় স্থানীয় বিএনপি নেতা সাহাবুদ্দিন ও কাদেরের নেতৃত্বে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা করে। হামলায় রাধানগর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ-যুবলীগের পাঁচ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।’ লালমনিরহাট : লালমনিরহাট-১ (হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম) আসনে বিএনপির প্রার্থী হাসান রাজীব প্রধানের ধানের শীষের প্রচার মাইক ভাঙচুর করেছেন নৌকার সমর্থকরা। এ সময় তারা ছাত্রদলের কয়েকজন কর্মীকে মারধর বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের দালালটারী এলাকায় ধানের শীষের প্রচার মাইক ভাঙচুর করার অভিযোগে হাতীবান্ধা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোশারফ হোসেন। বরগুনা : বরগুনা-২ (বেতাগী-বামনা-পাথরঘাটা) আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মিজানুর রহমানের গণসংযোগে আওয়ামী লীগ কর্মীরা বাধা দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল সকালে মিজানুর রহমান তার কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে পাথরঘাটায় পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচিতে যাওয়ার উদ্দেশে বরগুনার বড়ইতলা ফেরি পার হয়ে বাইন চটকি ফেরিঘাটে গেলে আওয়ামী লীগের কর্মীরা ফেরি ভিড়তে বাধা দেন। এ সময় তারা ফেরিতে থাকা জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে ২৫-৩০ জন আহত হন। মোরেলগঞ্জ : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে নির্বাচনী প্রচারণায় থাকা জাতীয় পার্টির মাইক ছিনতাই এবং পোস্টার খালে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বিকাল ৫টার দিকে রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের কামলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় লাঙ্গল প্রতীকের প্রচারে থাকা ছাত্রনেতা মাসুদ রেজা, রশিদ বেপারি, বাবলু কাজী ও ইজিবাইক চালক মিজান মুন্সিকে মারধর করেন তারা। নৌকা প্রতীকের কর্মী-সমর্থকরা এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী সোমনাথ দে। হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জে বিএনপির নয় নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাতে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। উল্লেখযোগ্য গ্রেফতার ব্যক্তিরা হচ্ছেন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী বেলাল, পইল ইউপি সদস্য মোস্তফা জামাল ও বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান। বরিশাল : বরিশালের উজিরপুর পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রোকনুজ্জামান টুলুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বিকালে পৌর শহরের চৌরাস্তা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে থানায় ডেকে নিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। চুয়াডাঙ্গা : জেলা যুবদল সভাপতি শরীফ-উর-জামান সিজারকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। গত রাত সাড়ে ৯টার দিকে শহরের বাগানপাড়ায় একটি চায়ের দোকানের পাশে বসে ছিলেন সিজার। এ সময় দু-তিনটি মোটরসাইকেলে চার-পাঁচ জন যুবক এসে তার সঙ্গে কথা বলে। একপর্যায়ে তারা সিজারকে কুপিয়ে জখম করে চলে যায়। এলাকাবাসী দ্রুত তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। নেত্রকোনা : জনসংযোগের সময় নেত্রকোনা-৪ আসনে কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী জলি তালুকদারের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত রাত সাড়ে ৯টার দিকে নিজ উপজেলা মোহনগঞ্জের মানসিরি পালপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে ছাত্র ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক পার্থপ্রতিমসহ তিনজন আহত হয়েছেন। কাস্তে মার্কার তরুণ এই নারী প্রার্থী বলেন, ক্ষমতাসীন দলের লোকজন এ হামলা চালিয়েছে। মানিকগঞ্জ : জেলার হরিরামপুর উপজেলায় মানিকগঞ্জ-২ আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী এস এম আবদুল মান্নানের  নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা করেছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ। এ সময় এস এম আবদুল মান্নানের গাড়িসহ বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। গতকাল বিকালে উপজেলা ভবনের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহ-৪ (সদর-কালীগঞ্জ) আসনে বিএনপির প্রার্থী সাইফুল ইসলাম ফিরোজের গণসংযোগ ও প্রচারণায় বাধা দেওয়া হচ্ছে বলে সহ-রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। সাইফুল ইসলাম ফিরোজের অভিযোগে উল্লেখ করেন, তার সংসদীয় এলাকার বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষ প্রতীকের পোস্টার ছেঁড়া, পুড়িয়ে দেওয়া, প্রচার মাইক বন্ধ করা ও নেতা-কর্মীদের মারধর করা হচ্ছে।

 নাটোর : নাটোর-২ আসনে বিএনপি প্রার্থী সাবিনা ইয়াসমিন ছবির প্রচারণা শেষে বাসায় ফেরার পথে যুবদল কর্মী নজরুল তালুকদারকে এলোপাতাড়ি মারধর করে রক্তাক্ত জখম করেছে একদল দুর্বৃত্ত। শেরপুর : শেরপুর-২ আসনে নকলা উপজেলার টালকি ইউনিয়নের রামেরকান্দি ও নারায়ণখোলা এলাকায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতা-কর্মীদের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় দলের অন্তত ২৫ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। জামালপুর : আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে বিএনপির বিভিন্ন নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর, পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা ও প্রচারে বাধার অভিযোগ এনেছেন জামালপুর-৫ (সদর) আসনে বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট ওয়ারেছ আলী মামুন। গতকাল তিনি শহরের সরদারপাড়ায় নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ  অভিযোগ করেন।

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) : পিরোজপুর-৩ মঠবাড়িয়া আসনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী ডা. রুস্তম আলী ফরাজীর সমর্থক এবং আওয়ামী লীগের মনোনয়নবঞ্চিত স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুর রহমান আপেল সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার রাতে উপজেলার বয়াতির হাটে এ সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় পক্ষের আটজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আহতদের স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষের ঘটনায় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চুসহ ১৭৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে সদর থানার উপ-পরিদর্শক জিমেল বাদী হয়ে মামলাটি করেন। সংঘর্ষের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করেছে।


আপনার মন্তব্য