Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ মার্চ, ২০১৯ ২৩:২৬

রহস্যজটে ঘুরপাক বিমান ছিনতাই চেষ্টা মামলা

এখনো ধোঁয়াশায় পুলিশ

মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

রহস্যজটে ঘুরপাক বিমান ছিনতাই চেষ্টা মামলা

বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাই চেষ্টা মামলাটি এখনো রহস্যজটে ঘুরপাক খাচ্ছে। ছিনতাই প্রচেষ্টা হওয়ার পর ছয় দিন অতিবাহিত হলেও ঘটনার ‘আসল’ রহস্য খুঁজে পায়নি মামলার তদন্তকারী সংস্থা চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। ঘটনা নিয়ে এখনো ধোঁয়াশায় রয়েছে তদন্তকারী দল।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার মাহাবুবর রহমান বলেন, এ মামলার এখনো বলার মতো অগ্রগতি নেই। ঘটনার রহস্য উন্মোচনে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট কাজ করছে। বলার মতো অগ্রগতি হলে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বিমান ছিনতাই চেষ্টার ঘটনায় মামলার তদন্ত দল ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাইয়ের চেষ্টাকারী পলাশ আহমেদ ওরফে মাহাদীর মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। এর বাইরে কোনো অগ্রগতি নেই। মাহাদীর ফেসবুক আইডি ও বিমানবন্দর থেকে পাওয়া ভিডিও বিশ্লেষণ করা হলেও তাতে গুরুত্বপূর্ণ কিছুই মেলেনি। তদন্ত কর্মকর্তা ছিনতাই চেষ্টার বিমান ও শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পরির্দশন করলেও তাতে কোনো ক্লু পাননি। তদন্ত সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, বিমান ছিনতাই চেষ্টা মামলাটি জটিল মামলাগুলোর একটি হওয়ায় পুলিশ ধীরে-সুস্থে তদন্ত করছে। এখন টেবিল ওয়ার্ক করে সমীকরণ মেলানোর চেষ্টা চলছে।

আবেদন যাচ্ছে আদালতে : ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাই চেষ্টার ঘটনায় জব্দ করা মামলার আলামত সিআইডির ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানোর জন্য আদালতের অনুমতি নিচ্ছে পুলিশ। দু-একদিনের মধ্যে এ বিষয়ে আদালতে আবেদন করবে মামলার তদন্তকারী সংস্থা চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। সিএমপি কমিশনার মাহাবুবর রহমান বলেন, মামলার আলামত সিআইডি ফরেনসিক ল্যাবে পাঠাতে আদালতের অনুমতির প্রয়োজন আছে। দু-একদিনের মধ্যে অনুমতির জন্য আদালতে আবেদন করা হবে। আদালতের অনুমতি পেলে মামলার জব্দ করা আলামত সিআইডি ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হবে। প্রসঙ্গত, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি বিকালে ঢাকা থেকে উড্ডয়নের পর বিমানের ফ্লাইট ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে পলাশ আহমেদ ওরফে মাহাদী। বিমানটি চট্টগ্রাম হয়ে দুবাই যাওয়ার কথা ছিল। বিমানটি ছিনতাইয়ের প্রচেষ্টার পর শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। পরে প্যারা কমান্ডো অভিযান চালিয়ে জিম্মিদশা থেকে বিমানটি মুক্ত করে। অভিযানেই নিহত হন ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাই চেষ্টাকারী পলাশ আহমেদ।


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর