Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৫ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ মার্চ, ২০১৯ ২৩:১১

কূটনৈতিক পাড়ায় রেড অ্যালার্ট, নামানো হয়েছে বিজিবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

কূটনৈতিক পাড়ায় রেড অ্যালার্ট, নামানো হয়েছে বিজিবি

রাজধানীর ডিপ্লোমেটিক জোনে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা, বিশেষ করে কূটনৈতিকপাড়াকে ঘিরে নেওয়া হয়েছে বিশেষ সতর্কতা। রাতে নামানো হয়েছে বিজিবি।

এরই মধ্যে সুইডিশ দূতাবাস থেকে সুইডিশ নাগরিকদের চলাচলে সতর্কতা  অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার পক্ষ থেকে গুলশান এলাকার সবগুলো ক্লাব নিরাপত্তার স্বার্থে ৪৮ ঘণ্টা বন্ধ রাখতে অনুরোধ করা হয়েছে। গুলশানের ফুটপাথে এবং মোড়ে মোড়ে অবস্থান নিয়ে আছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা। বিভিন্ন বাসাবাড়ির আন্ডারগ্রাউন্ড পার্কিং পরীক্ষা করে দেখছেন গোয়েন্দারা। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যদিও পুলিশের একটি সূত্রের তথ্য হচ্ছে, জঙ্গি হামলার আশঙ্কা থেকেই নিরাপত্তার এমন আয়োজন। গতকাল দুপুরের পর থেকে রাজধানীর বিভিন্ন মোড়ে  নিরাপত্তা চৌকি বসিয়ে পথচারীদের ব্যাগ ও গাড়িতে তল্লাশি করতে দেখা যায়। পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা অবস্থান নেন রাজধানীর বিভিন্ন চার্চের সামনে। বিকাল ৪টার দিকে রাজধানীর কাকরাইল এলাকায় মোটরসাইকেল আরোহীদের তল্লাশি করতে দেখা যায়। কাকরাইলে কর্মরত একজন ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘কন্ট্রোল রুম থেকে সতর্ক করা হয়েছে। তাই আমরা তল্লাশি করছি।’ কিছু সময়ের জন্য ডিএমপি সদর দফতরের সামনে অবস্থান নেন সোয়াত সদস্যরা। ঢাকার কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় ক্লাব নিজেদের পক্ষ থেকে বিশেষ সতর্কতা জারি করে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি সূত্র জানায়, নব্য জেএমবির একটি গ্রুপ ঢাকা বা এর বাইরে কোনো একটি চার্চ বা কোথাও হামলা করতে পারে বলে তথ্য পাওয়া গেছে। এ কারণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। কয়েক দিন আগে আবু মোহাম্মদ আল বাঙালি নামে নব্য জেএমবির এক শীর্ষ নেতা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ তাদের ভাষায় কাফেরদের ওপর হামলা চালানোর আহ্বান জানান। প্রয়োজনে গাড়িচাপার মাধ্যমেও হামলা চালানোর হুমকি দেওয়া হয়। ওই হুমকির পর থেকে সিটিটিসির কর্মকর্তারা গোয়েন্দা অনুসন্ধান আরও জোরদার করে জঙ্গিদের হামলার পরিকল্পনা জানার চেষ্টা করেন। পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, আবু মোহাম্মদ আল বাঙালি জঙ্গি সংগঠনে যোগ দেওয়ার আগে ডন নামে পরিচিত ছিলেন। তার বিস্তারিত তথ্য জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। নিরাপত্তার বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার বরাত দিয়ে উপকমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান বলেন, নিউজিল্যান্ডে হামলার পর এমনিতেই কূটনৈতিকপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার ছিল। ২৬ মার্চ উপলক্ষে আরও খানিকটা বাড়তি নিরাপত্তা যোগ করা হয়েছে। র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপস্) কর্নেল জাহাঙ্গীর আলম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে কেউ যাতে নাশকতা করতে না পারে সে জন্য আমরা একটু সিকিউরিটি টাইট করছি। আমাদের সবকটি ব্যাটালিয়নকে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আমরা এমনিতেই মাঝেমধ্যে সিকিউরিটি টাইট করি, একটু বেশি অ্যালার্ট থাকি। এটা আমাদের নিয়মিত কাজের অংশ। আমরা অ্যালার্ট আছি। এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।’


আপনার মন্তব্য