প্রকাশ : শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:২২

অমিত সাহা ও তানভীর ফের রিমান্ডে তোহা কারাগারে

আদালত প্রতিবেদক

অমিত সাহা ও তানভীর ফের রিমান্ডে তোহা কারাগারে

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বী হত্যা মামলার আসামি অমিত সাহা ও খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীরকে তিন দিন করে ফের রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে আদালত। এ ছাড়া আসামি হোসেন মোহাম্মদ তোহাকে পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হলে কারাগারে পাঠানো  হয়। গতকাল ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ এ অদেশ দেন। এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান আসামিদের আদালতে হাজির করে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। এদের মধ্যে পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে আসামি অমিত সাহাকে এবং ১৩ অক্টোবর আসামি খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীরকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানোর পর গতকাল রিমান্ড শুনানির জন্য ফের আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে বিচারক রিমান্ডের আদেশ দেন। রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, এ মামলার আসামি অমিত সাহা ও খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীর সরাসরি আবরার হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত। এর আগে তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আসামিরা এ হত্যাকান্ডের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে।

 মামলার তদন্ত, সাক্ষ্য-প্রমাণ ও ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনায় তাদের জড়িত থাকা সম্পর্কে যথেষ্ট সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। ইতিপূর্বে এ মামলায় আদালতে স্বীকারোক্তি প্রদানকারীদের মধ্যে কয়েকজন আসামির জবানবন্দিতে এ দুই আসামি জড়িত মর্মে নাম প্রকাশ করেছে। তাই মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে অন্য আসামিদের শনাক্ত ও গ্রেফতারের জন্য সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে এ দুই আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। মামলা সূত্রে জানা গেছে, বুয়েটের তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের একটি কক্ষে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আবরারের বাবা রাজধানীর চকবাজার থানায় ১৯ জনের নামে বাদী হয়ে মামলা করেন। পরে ১৯ আসামিকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করে কর্তৃপক্ষ। হত্যাকান্ডে জড়িত হিসেবে যাদের নাম এসেছে, তারা সবাই ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর