Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:২১

পাপড়ি বড় করার কৌশল

চোখের ভাষায় মনের কথা বোঝা যায়। আর সেই চোখের চাউনিকে অর্থবহ করে ঘন কালো পাপড়ি। তাই ঘন পাপড়ির সুস্থতার জন্য রইল পরামর্শ...

পাপড়ি বড় করার কৌশল
ছবি : ফারহান আহমেদ

চোখ মনের কথা বলে। আর নারী সৌন্দর্যের অন্যতম অংশ চোখ। অতীতে বড় বড় রাজা-বাদশা এবং প্রসিদ্ধ সব সাহিত্যিকও নারী চোখের জাদুতে ডুব দিয়েছেন। কিন্তু সময় বদলেছে। কিন্তু নারী সৌন্দর্যে চোখের আবেদন কমেনি এতটুকুও। আর হ্যাঁ, এই চোখ জোড়াকে সুন্দর দেখায় ঘন কালো পাপড়ি। কেননা, চোখের পাপড়ি বড় থাকলে সেই চোখ সুশ্রী দেখায়। আর তাই ঘন কালো পাপড়ি পেতে মরিয়া থাকেন সুন্দরীরা। কিন্তু চাইলেই কী বড় পাপড়ি পাওয়া সম্ভব? হয়তো এমন সৌভাগ্য সবার হয় না। তবে কিছু নিয়ম মেনে চললে আপনার চোখের পেলভও হবে ঘন এবং সুশ্রী।

 

পাপড়ির সুরক্ষায় সচেতনতা

ঘুম থেকে উঠে : প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে চোখ ভালো করে পরিষ্কার করবেন। অন্যথায় ময়লা লেগে পাপড়ি ঝরে যেতে পারে। আর হ্যাঁ; ঘুম ভেঙে যাওয়ার পর জোরেশোরে চোখ ঘষবেন না। এতে পাপড়ি ঝরে যেতে পারে।

 

সাজের পূর্বে : মেকআপের আগে চোখের উপরিভাগ ও পাপড়ি পরিষ্কার আছে কি না, তা দেখে নিন। ময়লা চোখ সাজানো ঠিক নয়। আবার চোখ সাজাতে গিয়ে কোনোভাবেই বাড়তি চাপ দেওয়া যাবে না। এতে পাপড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

 

মেকআপ তোলার সময় : মেকআপ তোলার সময় অবশ্যই আই মেকআপ রিমুভার ব্যবহার করুন। এতে চোখের পাপড়ি ভালো থাকে। ফেসওয়াশ দিয়ে চোখের মেকআপ তোলা ঠিক নয়।

 

পাপড়িতে খুশকি : কারও কারও চোখের পাপড়িতে খুশকি হতে দেখা যায়। এতে পাপড়ির স্বাভাবিক সৌন্দর্য নষ্ট হয়। এক্ষেত্রে দ্রুত চিকিৎসক বা কসমোলজিস্টের পরামর্শ নিন।

 

ঘন পাপড়ি পেতে সচেতনতার পাশাপাশি প্রয়োজন নানা আয়ুর্বেদিক সমাধান। চলুন তাহলে জেনে নিই কয়েকটি ঘরোয়া টিপস।

 

►   একটি পাত্রে সামান্য অলিভ অয়েল ও লেবুর খোসা গরম করে নিন। একইভাবে তিনবার গরম করার পর অয়েলটি মাশকারা ব্রাশের সাহায্যে চোখের পাপড়িতে লাগান। সারা রাত রেখে সকালে কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

►   পেট্রোলিয়াম জেলি বা অ্যালোভেরা জেলের মতোই কাজ করে অলিভ অয়েল। ঘুমানোর আগে মাশকারা ব্রাশ দিয়ে চোখের পাপড়িতে অলিভ অয়েল মেখে ঘুম থেকে উঠে মুখ ধুয়ে ফেলতে পারেন। এতে করে দুই থেকে তিন মাসের মধ্যেই কাক্সিক্ষত ফল পাবেন।

►    ঘুমাতে যাওয়ার আগে মাশকারার ব্রাশ দিয়ে চোখের পাপড়িতে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে ঘুমান। সকালে উঠে কুসুুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলুন। চোখের পাপড়ি সুন্দর হবে।

►    ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে এক টেবিল চামচ গ্লিসারিন মেখে নিন। চোখ বন্ধ করে কটন বাড দিয়ে মিশ্রণটি চোখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। চোখের পাপড়ি আরও ঘন ও লম্বা হবে।

►    বাজারে অ্যালোভেরা জেল পাওয়া যায়। পরিষ্কার মাশকারার ব্রাশ অ্যালোভেরা জেলের মধ্যে ডুবিয়ে চোখের পাপড়িতে লাগান। এটিও ঘুমাতে যাওয়ার আগে ব্যবহার করতে হবে এবং ঘুম থেকে ওঠার পর ভালোভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে।

►    ভিটামিন-ই চোখের পাপড়ি বড় করতে সহায়তা করে। এটি পাপড়িতে লাগাতে হবে ঘুমোতে যাওয়ার আগে। এক মাসেই দারুণ উপকার উপলব্ধি করবেন।

 

এ ছাড়া চুল সঠিকভাবে নিয়মিত আঁচড়ানো যেমন চুলের বৃদ্ধিতে সহায়ক, একইভাবে চোখের পাপড়িও বৃদ্ধি সম্ভব। নিয়মিত চোখের পাপড়ি আঁচড়ে নেবেন। চোখের মেকআপে কখনোই অতিরিক্ত মাত্রায় আইল্যাশ কালার ব্যবহার করবেন না। এতে চোখের পাপড়ির ক্ষতি হয়।

 

লিখেছেন : উম্মে হানি


আপনার মন্তব্য