শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:০৩

আজকের ভাগ্যচক্র

ড. কে সি পাল

আজকের ভাগ্যচক্র

আজকের এই দিনে জন্মগ্রহণ করায় পাশ্চাত্যমতে আপনি মকর রাশির জাতব্যক্তি। আপনার ওপর আজ রাশি অধিপতি শনি মহারাজ, দেবগুরু বৃহস্পতি ও দৈত্যকুল গুরু শুক্রাচার্যের প্রভাব বিদ্যমান। আপনার সঙ্গে মীন রাশির বন্ধুত্ব শুভফল প্রদান করবে। কর্মের সুনাম যশ পদোন্নতির পথ সুগম করবে। গৃহবাড়ির কোনো না কোনো মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হওয়ায় ভ্রাতাভগ্নিদের সঙ্গে প্রীতির বন্ধন রচিত হওয়ার সম্ভাবনা।

 

মেষ [২১ মার্চ-২০ এপ্রিল]

বাণিজ্যিক সফর লাভদায়ক তথা ভ্রমণকালীন বন্ধুত্ব সারা জীবনের পাথেয় হবে। কর্মের সুনাম যশ পদোন্নতির পথ সুগম করবে। দূর থেকে আসা কোনো সংবাদে গোটা পরিবারে খুশির জোয়ার বইবে। হারানো পিতৃমাতৃ ধনসম্পদ সম্পত্তি ব্যবসা ফিরে পাওয়ার পথ প্রশস্ত হবে। লৌকিকতায় প্রচুর ব্যয় হতে পারে।

 

বৃষ [২১ এপ্রিল-২০ মে]

আয় বুঝে ব্যয় করুন নচেৎ সঞ্চয়ে হাত পড়বে। বাড়ির ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী ও যানবাহন মেরামতে শ্রম অর্থ দুটোই সমানতালে ব্যয় হবে। দূর থেকে আসা কোনো অপ্রিয় সংবাদে গোটা পরিবারে শোকের মাতাম চলতে পারে। এতদসত্ত্বেও মন সুর সংগীত ধর্ম আধ্যাত্মিকতা ও পরোপকারের প্রতি বিশেষভাবে আকৃষ্ট থাকবে।

 

মিথুন [২১ মে-২০ জুন]

মনোবল জনবল অর্থবলের সঙ্গে সঙ্গে সুনাম যশ প্রতিষ্ঠার গ্রাফ চাঙ্গা হয়ে উঠবে। নিত্যনতুন ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিকল্পনা আলোর মুখ দর্শন করবে। মামলা-মোকদ্দমার রায় পক্ষে আসার সম্ভাবনা। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে, যার ফলে আপনাকে সর্বদাই ব্যস্ত থাকতে হবে। দ্রুতগতির বাহন বর্জন করা শ্রেয়।

 

কর্কট  [২১ জুন-২০ জুলাই]

হাত বাড়ালেই সফলতা প্রাপ্ত হওয়ায় মন আনন্দে নাচবে। বিবাহযোগ্যদের বিবাহকার্য সুসম্পন্ন হবে তথা ওই বিবাহে প্রচুর উপহার উপঢৌকনাদিও প্রাপ্ত হবেন। সন্তানগণ আজ্ঞাবহ হয়ে থাকবে। শত্রু ও বিরোধী পক্ষের সব পরিকল্পনা নস্যাৎ করে আপনি দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলবেন। প্রেম রোমান্স বিনোদন শুভ।

 

সিংহ [২১ জুলাই-২০ আগস্ট]

শ্রমিক-কর্মচারী ও ড্রাইভারদের মনে মালিকপ্রীতি জেগে উঠবে। বিদেশে অবস্থানরত স্বজনদের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে ঋণ মুক্তির পথ প্রশস্ত হবে। আজকের রোপণ করা বৃক্ষ ভবিষ্যতে ফুল, ফল ও সংকটকালে ছায়া দিয়ে বাঁচাবে। অপরিচিত কাউকে আশ্রয় দেওয়া খালকেটে কুমির আনার সমান হতে পারে।

 

কন্যা [২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর]

দুর্ঘটনা রক্তপাত উৎকট উদ্ভট ঝামেলা আর অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নিজেকে গুটিয়ে রাখা সমীচীন হবে। পিতা-মাতার কাছ থেকে ভরপুর সাহায্য-সহযোগিতা ও আশীর্বাদ প্রাপ্ত হবেন। দূর থেকে আসা ডাক বেকারদের কর্মপ্রাপ্তির বাসনা পূরণ করবে। সন্তানদের সাফল্যে গৌরবান্বিত হতে পারেন।

 

তুলা [২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর]

জীবনসঙ্গী শ্বশুরালয় ও মাতুলালয় থেকে ভরপুর সাহায্য-সহযোগিতা প্রাপ্ত হবেন। নিত্যনতুন প্ল্যান-প্রোগ্রাম আর স্বপ্নসাধ পূরণের পথ খুলবে। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে। যার ফলে আপনাকে সর্বদাই ব্যস্ত থাকতে হবে। সপরিবারে কোনো মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে যোগদান করতে পারেন।

 

বৃশ্চিক [২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর]

যে কাজে হাত দেবেন তাতেই কমবেশি সফলতা প্রাপ্ত হবেন। বিদেশ গমন ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দুটোই সমানতালে শুভফল প্রদান করবে। গৃহবাড়ি ভূমি সম্পত্তি ও যানবাহন লাভের পথ প্রশস্ত হবে। পিতা-মাতার সঙ্গে সদ্ভাব বজায় রাখুন, নচেৎ গৃহবাড়ি ত্যাগ করতে হতে পারে। মন সুর সংগীতের প্রতি ঝুঁকবে।

 

ধনু [২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর]

হারানো পিতৃমাতৃ ধনসম্পদ সম্পত্তি ব্যবসা ফিরে পাওয়ার পথ প্রশস্ত হবে। বিদ্যার্থীদের মন আনন্দে নাচবে। যোগ্যকর্ম ও ব্যবসা-বাণিজ্য ব্যাপদ্দেশে দূর ভ্রমণের সম্ভাবনা। সম্ভাব্য ক্ষেত্রে জন্মগ্রহণ করা শিশুটিকে নিয়ে হাসপাতালে চক্কর কাটতে হবে। আশ্রিত ও প্রতিপালিত ব্যক্তি দ্বারা ক্ষতির সম্ভাবনা প্রবল।

 

মকর [২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি]

দুর্জন আত্মীয়বেশে আপনার সুখের সংসারে অশান্তির অনল জ্বেলে দিতে পারে। দাম্পত্য সুখ-শান্তি প্রতিষ্ঠা বজায় রাখতে জীবনসঙ্গীর মতামতকে গুরুত্ব দিন। অবশ্য সংকটকালে বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-পরিজন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে ধরবে। প্রেমীযুগলের প্রেম-বিবাহের মাধ্যমে সমাজে স্বীকৃতি পাওয়ার সম্ভাবনা।

 

কুম্ভ [২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি]

কর্ম ও ব্যবসা-বাণিজ্যে তরতাজা উন্নতি করতে থাকায় মন আনন্দে নাচবে। ভাইবোনদের কাছ থেকে প্রাপ্ত সহযোগিতা স্বপ্ন পূরণে সহায়ক হবে। গৃহবাড়িতে কোনো না কোনো মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হওয়ায় সাজ সাজ রবরব করবে। দীর্ঘদিনের দাম্পত্য ও পারিবারিক কলহ-বিবাদের মীমাংসা হওয়ার সম্ভাবনা।

 

মীন [১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ]

ভাইবোনদের কাছ থেকে প্রাপ্ত সহযোগিতা স্বপ্ন পূরণে সহায়ক হবে। কর্ম ও ব্যবসাবাণিজ্যে বড় কোনো অর্ডার হাতে আসায় বস আপনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে থাকবে। হারানো বুকের ধন অর্থ সম্পদ ফিরে পাওয়ার পথ প্রশস্ত হবে। লৌকিকতায় যেমন ব্যয় হবে তেমনি উপহার উপঢৌকনাদীও সমানে প্রাপ্ত হবেন।


আপনার মন্তব্য