Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৫ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ মার্চ, ২০১৯ ২৩:৩৩

কারাগারে সেই হামলাকারীকে যেভাবে রাখা হয়েছে

নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হত্যাযজ্ঞ

কারাগারে সেই হামলাকারীকে যেভাবে রাখা হয়েছে

আর ১০ জন সাধারণ বন্দীর মতো করে নয়, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্দেহভাজন হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারেন্টকে কারাগারে রাখা হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থায়। তার কারারক্ষী নিয়োগের  ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে  শোনা যাচ্ছে। সংবাদমাধ্যম নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানিয়েছে, ইতিমধ্যে সামরিক বিমানে করে কড়া নিরাপত্তাবিশিষ্ট অকল্যান্ডের পারোমোরেমো কারাগারে নেওয়া হয়েছে তাকে। ওই কারাগারে বন্দী রয়েছে দেশটির কুখ্যাত সব অপরাধী। সেখানে সার্বক্ষণিক নজরদারির মধ্যে রয়েছে সে। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, নিউজিল্যান্ডের দুই মসজিদে গুলি চালিয়ে ৫০ জন মুসল্লিকে হত্যা করে অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। উগ্র মুসলিমবিদ্বেষী এ হামলাকারী এর আগে অনলাইনে ১৬ হাজার ৫০০ শব্দের একটি ইশতেহারে নৃশংস এ হামলার পেছনে নিজের বক্তব্য তুলে ধরে। এতে নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসের নৃশংস ওই খুনি দাবি করে, শ্বেতাঙ্গরা গণহত্যার শিকার। এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হামলাকারীকে ২৪ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তার জন্য নিয়োজিত রয়েছে কেবল শ্বেতাঙ্গ কারারক্ষীরা। ওই সূত্র বলেছেন, নিউজিল্যান্ডে সাধারণত এমনটা ঘটতে দেখা যায় না। জাতিগোষ্ঠী কিংবা বর্ণ বিবেচনা করে নিউজিল্যান্ডে কারারক্ষী নিয়োগ করা হয় না।’ তার ধারণা, কর্তৃপক্ষ হয়তো ভাবছেন অশ্বেতাঙ্গ নিরাপত্তা কর্মীকে নিয়োজিত করা হলে তাদের আক্রোশের শিকার হতে পারেন ওই হামলাকারী। তবে তার প্রশ্ন : কেন এই বিশেষ নিয়ম করতে হবে। টারান্টের কারারক্ষী হিসেবে কেবল শ্বেতাঙ্গদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে এক কর্মকর্তা নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডকে বলেছেন, আমাদের বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের অনেক কর্মী রয়েছেন। নিরাপত্তাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। আমাদের স্বাভাবিক রুটিন মাফিক কর্মী বণ্টন প্রক্রিয়া তার জন্য পরিবর্তন হয়নি এবং হবেও না।’ হামলাকারী ট্যারেন্টকে পারোমারেমো কারাগার নিয়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেছে প্রতিরক্ষা বাহিনী।


আপনার মন্তব্য