শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:২৯

মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন

ক্ষুব্ধ শিবসেনা আদালতের দ্বারস্থ

মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন

ভারতের মহারাষ্ট্রে কোনো দলই সরকার গঠন করতে না পারায় অবশেষে সেখানে রাষ্ট্রপতির শাসন জারি করা হয়েছে। কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি, তাদের জোট সঙ্গী শিবসেনা ও ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টিকে তিন দফায় সরকার গঠনের আহ্বান জানানো হলেও সবাই সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হওয়ায় এই পদক্ষেপ। যদিও এ নিয়ে তীব্র আপত্তি তুলেছে বিরোধীরা। শিবসেনা দাবি করেছে নির্ধারিত সময়ের আগেই কেন্দ্রীয় সরকার আগ বাড়িয়ে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করে। ক্ষুব্ধ শিবসেনা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সর্বশেষ ও তৃতীয় দল হিসেবে এনসিপি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সরকার গঠনে ব্যর্থ হলে রাজ্যপাল ভগৎ সিংহ কেশিয়ারি রাষ্ট্রপতিকে এই শাসন জারির অনুরোধ করেন।  এ অবস্থায় ব্রাজিল সফর বিলম্বিত করে জরুরি  মন্ত্রিসভার বৈঠক ডাকেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাতে রাষ্ট্রপতি শাসনের পক্ষে সায় দিয়ে এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করার জন্য রাষ্ট্রপতি ভবনকে সুপারিশ করে মন্ত্রিসভা। সেই বিজ্ঞপ্তিতে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সই করার পরেই কার্যকরী হলো ৩৫৬ ধারা, অর্থাৎ রাষ্ট্রপতি শাসন। প্রসঙ্গত, মহারাষ্ট্রের ২৮৮ আসন বিশিষ্ট বিধানসভায় সরকার গঠনে প্রয়োজন ১৪৫ আসন। নির্বাচনে বিজেপি ১০৫, শিবসেনা ৫৬, এনসিপি ৫৪ ও কংগ্রেস ৪৪টি আসনে জয়লাভ করে।


আপনার মন্তব্য