শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ জুলাই, ২০২০ ১৯:৫৫

করোনায় স্বামীর মৃত্যুর খবর পেয়েই দুই কন্যাসহ রেললাইনে ঝাঁপ স্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় স্বামীর মৃত্যুর খবর পেয়েই দুই কন্যাসহ রেললাইনে ঝাঁপ স্ত্রীর

করোনায় আক্রান্ত হয়ে স্বামীর মৃত্যুর খবর পেয়েই দুই কন্যাসন্তান নিয়ে রেললাইনে ঝাঁপ দিলেন  স্ত্রী। মারাত্মক আহত ওই মহিলা ও তার ২ ও ৪ বছরের দুই সন্তানকে ভারতের উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক দার্জিলিংয়ের শিলিগুড়ির ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের চম্পাসারি এলাকার বাসিন্দারা।

মৃত ৩৮ বছর বয়সের ওই যুবক খড়িবাড়ির রামজনম প্রাইমারি স্কুলের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। লকডাউন চলায় স্কুল বন্ধ। তাই এখন বাড়িতেই ছিলেন। শিলিগুড়ি ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের চম্পাসারি এলাকায় বাড়িতে ছোট দুই শিশুকন্যা ও স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন তিনি। তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কদিন থেকেই জ্বর, সর্দি, কাশিসহ করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন ওই শিক্ষক। গত ৩ জুলাই শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে দেখাতে গেলে সেখানেই তাকে ভর্তি রাখা হয়। করোনা পজেটিভ রিপোর্টও আসে। তারপর থেকেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। ডাক্তাররা জানান, পরিস্থিতি খারাপ বুঝতে পেরেই তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। তাকে বাঁচানোর সমস্ত চেষ্টা হয়। কিন্তু সব চেষ্টা ব্যর্থ করেই সোমবার গভীর রাতে মারা যান তিনি।

মঙ্গলবার সকালে পরিবারের সদস্যরা মৃত্যুর খবর পান। আর তাতেই ভেঙে পড়ে গোটা পরিবার। প্রতিবেশীরা জানান, সকালে ওই শিক্ষকের মৃত্যু সংবাদ আসতেই দুই শিশুকে নিয়ে পাগলের মতো বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যান তার স্ত্রী। প্রতিবেশীরা বাধা দিয়েও আটকাতে পারেননি তাকে। জানা গেছে এরপরেই একেবারে এনজেপিতে গিয়ে হাজির হন। সেখানেই ফুট ওভারব্রিজ থেকে দুই কন্যা সন্তানকে বুকে জড়িয়ে ঝাঁপ দেন রেললাইনে। দেখতে পেয়ে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। ছুটে আসে রেল পুলিশ। মারাত্মক আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সূত্র : দ্য ওয়াল।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর