শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ অক্টোবর, ২০১৪ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ অক্টোবর, ২০১৪ ০০:০০

জমে উঠেছে পশুর হাট

জমে উঠেছে পশুর হাট

জমে উঠেছে রাজধানীর কোরবানির পশুর হাট। গতকাল বিভিন্ন পশুর হাটে গিয়ে দেখা গেছে ক্রেতাদের ব্যাপক ভিড়। ইজারাদার ও ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, বিকাল থেকেই বেচাকেনা অধিক হারে শুরু হয়েছে। তবে আজ থেকে মূল বেচাকেনা শুরু হবে বলে অনেকে জানিয়েছেন। ক্রেতারা অনেকে বিভিন্ন বাজার যাচাই করে দেখছেন। বাজারে গরুর সরবরাহ রয়েছে প্রচুর। এ ছাড়া এখনো দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গরু ঢাকায় আসছে। বাজারে বিভিন্ন প্রজাতির গরু থাকলেও দেশি গরুর চাহিদা তুলনামূলক বেশি এবং দাম কিছুটা বেশি বলে অনেকে জানিয়েছেন। অন্যদিকে এ বছর মোটা গরুর চাহিদা কম থাকায় দামও তুলনামূলক কম।
রাজধানীর বিভিন্ন পশু হাট ঘুরে দেখা গেছে, নগরীর উত্তরার আজমপুর, বারিধারা, আগারগাঁও, মেরাদিয়া, শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনির মৈত্রী সংঘের মাঠ, গোলাপবাগ মাঠ, রহমতগঞ্জ খেলার মাঠে পশুর হাট জমে ওঠেছে। এবারও নানা জাতের গরু হাটে তোলা হয়েছে। এর মধ্যে আছে ভারতের হরিয়ানা, নেপালি ভুট্টি, মিরকাদিমের সাদা গাই, দক্ষিণাঞ্চলের পালা মহিষ, পাকিস্তানের সিন্ধি ও দেশি গরু। গাবতলী হাটে এবার দেশি গরুর আমদানি বেশি। হাটের ইজারদার কর্তৃপক্ষ বেপারীদের জন্য যাবতীয় সুবিধার ব্যবস্থা করেছে। হাটগুলোতে মাইকের মাধ্যমে বেপারীদের সজাগ করে দেওয়া হচ্ছে। সব হাটে পুলিশ অস্থায়ী ক্যাম্প বসিয়েছে। বেপারীদের গরু বিক্রির পর জালটাকা রোধে টাকা চেক করতে মেশিন বসানো হয়েছে প্রত্যেক হাটে। গরুর পাশাপাশি মহিষ, ছাগলের সরবরাহও প্রচুর। গাবতলী পশু হাটে এসেছে মরুভূমির উট। ক্রেতা বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রচুর সরবরাহ থাকলেও দাম সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে। গত বছরের চেয়ে এবছর দামের পার্থক্য তেমন নেই। ক্রেতাদের আগ্রহ বেশি দেশীয় গরু কিনতে। দেশীয় গরু কেনার চাহিদা থাকায় ব্যবসায়ীরাও দাম কমাচ্ছেন না। কেউ অতিরিক্ত দাম চাচ্ছেন না। বনশ্রী হাটের এক ক্রেতা জানিয়েছেন, কোনো গরুর দাম ৫০ হাজার টাকা চাইলেও তা ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা বেশি কমাচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা। হাটে মহিষের সরবরাহও রয়েছে। তবে চাহিদা খুবই কম বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন। অন্যদিকে ১০ থেকে ১২ কেজি ওজনের প্রতিটি ছাগল বিক্রি হয়েছে পাঁচ থেকে ৬ হাজার টাকা। রাজধানীর গাবতলী হাটের ইজারাদার মো. লুতফর রহমান জানিয়েছেন, আজকেই (বৃহস্পতিবার) বাজার জমে উঠেছে। অনেক ক্রেতাই গরু কিনেছেন। তবে কাল (আজ) মূল বেচাকেনা হবে। গাবতলী হাটে ইতিমধ্যে ১৬টি উট এলেও বিক্রি হয়েছে মাত্র দুটি। পথে রয়েছে আরও ৫০টি।
অনলাইনে কেনা যাচ্ছে গরু : প্রযুক্তি ছোঁয়া লেগেছে গরুর হাটেও। হাটে গিয়ে যারা গরু কিনতে চান না অথবা হাট সম্পর্কে ধারণা নিতে অনেকেই বিভিন্ন ক্রয় বিক্রয়ের অনলাইন মাধ্যমে ঢু মারছেন। এ ছাড়া হাটের বিভিন্ন আকারের গরুর ছবি আপলোড করে ক্রেতাদের কাছে উপস্থাপন করা হচ্ছে অনলাইন মাধ্যমগুলো। অনলাইনে ক্রেতা কোনো পশু কিনলে তার ঠিকানায় পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।


আপনার মন্তব্য

Bangladesh Pratidin

Bangladesh Pratidin Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম,

নির্বাহী সম্পাদক : পীর হাবিবুর রহমান । ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত। ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫। ই-মেইল : [email protected] , [email protected]

Copyright © 2015-2019 bd-pratidin.com