Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১৮

ইচ্ছা করে ধীরগতি করছে অ্যাকর্ড

--------- সিদ্দিকুর রহমান

ইচ্ছা করে ধীরগতি করছে অ্যাকর্ড

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেছেন, পোশাকশিল্পের কর্মপরিবেশ উন্নয়নে অ্যাকর্ডের কিছু কাজ এখনো বাকি রয়েছে। কিন্তু অ্যাকর্ড ইচ্ছা করেই তাদের কাজ ধীরগতিতে করছে। এ বিষয়ে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। আদালত যে রায় দেবে, পোশাকশিল্প মালিকরা সেটা মেনে নেবেন।

গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান আরও বলেন, বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলা থাকায় আপাতত এটুকু বলতে চাইÑ আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও)-সহ অন্যান্য সংস্থার পরামর্শে সরকার রিমেডিয়েশন কো-অর্ডিনেশন সেল (আরসিসি) করেছে। এর সক্ষমতা বাড়াতে আরেকটু সময় লাগবে। উত্তর আমেরিকার ক্রেতা জোট অ্যালায়েন্স ফর ওয়ার্কার্স সেফটি ইন বাংলাদেশ (অ্যালায়েন্স) এরই মধ্যে চলে গেছে। এখন অ্যাকর্ডকেও চলে যেতে হবে।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, দেশের প্রধান রফতানি পণ্য উৎপাদনকারী খাত তৈরি পোশাকশিল্পের কর্মপরিবেশ উন্নয়নের নামে আসে অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্স। ইতিহাসের সর্ববৃহৎ শিল্প-কারখানা হিসেবে রানা প্লাজা ভবন ধসের পর বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সরকারের সঙ্গে করা চুক্তি অনুযায়ী ২০১৮ সালের জুনে চলে যাওয়ার কথা অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্সের। তবে এখনো কেন থাকতে চায় অ্যাকর্ড?


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর