Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৩

বিজিবি-গ্রামবাসী সংঘর্ষ

নিহত ব্যক্তিসহ ২ শতাধিক মানুষের বিরুদ্ধে মামলা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

নিহত ব্যক্তিসহ ২ শতাধিক মানুষের বিরুদ্ধে মামলা

ঠাকুরগাঁওয়ে বিজিবি-গ্রামবাসীর সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় ১৯ জনসহ অজ্ঞাত ২ শতাধিক মানুষের বিরুদ্ধে হরিপুর থানায় মামলা করেছে বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন।

শুক্রবার বিজিবি বেতনা বিওপির পক্ষ থেকে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বীকার করেছেন।

মামলার বিষয়ে ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবির অধিনায়ক  লে. কর্নেল তুহিন মো. মাসুদ জানান, মঙ্গলবার বহরমপুর গ্রামে বিজিবির ওপর হামলার ঘটনায় বেতনা বিওপির নায়েব সুবেদার জহুরুল  ইসলাম বাদী হয়ে ২ শতাধিক হামলাকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুজ্জামান মামলার কথা স্বীকার করে বলেন, গত মঙ্গলবার বহরমপুর গ্রামে বিজিবির জব্দকৃত গরু ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় বিজিবি-গ্রামবাসীর সংঘর্ষ হয়। এতে গুলিতে তিনজন নিহত ও বিজিবি সদস্য ২০ জন আহত হয়। গরু পাচার ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে বিজিবির পক্ষ থেকে মামলায় আসামি করা হয়েছে ওইদিন গুলিতে নিহত নবাব আলী ও সাদেকুল ইসলামসহ ২ শতাধিক মানুষকে। উল্লেখ্য, চোরাই গরু ঢুকেছে সন্দেহে বিজিবি সদস্যরা গত মঙ্গলবার হরিপুর উপজেলার বকুয়া ইউনিয়নের বহরমপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে কয়েকটি গরু জব্দ করে ট্রাকে তুললে গ্রামবাসী বাধা দেয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। বিজিবি সদস্যরা তখন গুলি চালালে তিনজন নিহত হন, আহত হন বিজিবি সদস্যসহ অন্তত ২০ জন।

নিহতরা হলেন- রুইয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে নবাব আলী ও জহিরুলের ছেলে সাদেক মিয়া এবং বহরমপুর গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে জয়নাল। বিজিবির দাবি, জব্দ করা গরু বিওপিতে নেওয়ার সময় চোরা কারবারিরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা গুলি চালাতে বাধ্য হয়।


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর