Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ মে, ২০১৯ ২৩:৩১

ওয়েস্টিনে ‘এরাবিক’ ইফতার ও সাহরি

জিন্নাতুন নূর

ওয়েস্টিনে ‘এরাবিক’  ইফতার ও সাহরি

এই রমজানে মরক্কো, তুরস্ক ও সিরিয়াসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন মুসলিম দেশের সুস্বাদু কাবাব ও মজাদার ইফতার সামগ্রীর পসরা সাজিয়ে বসেছে রাজধানীর পাঁচ তারকা হোটেল ওয়েস্টিন। বাংলাদেশি ঐতিহ্যবাহী ইফতারি ছাড়াও এরাবিক এবং মিডল ইস্টার্ন ঘরনার বিভিন্ন সুস্বাদু খাবার ও কাবাব ওয়েস্টিনের ইফতারি তালিকায় পাওয়া যাচ্ছে। খাবারের তালিকায় আরও আছে বিভিন্ন ধরনের ডেসার্ট, কন্টিনেন্টাল খাবার, মজাদার ফ্রুট সালাদ ও জুস। ভোজনরসিকদের জন্য এই রমজানে ইফতারের পাশাপাশি সাহরির ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে ওয়েস্টিনে।  ওয়েস্টিনের মাস্টার শেফ ব্রুক টানসেল এবং তার টিম মজাদার এসব সিগনেচার ইফতার আইটেম তৈরি করছেন। তাদের তৈরি করা এরাবিক খাবারগুলোর মধ্যে আছে লাহমাজুন, কিব্বে নাইয়্যেহ, চিকেন ফাত্তেহ, শেহজাদা কাবাব, মরোক্কান তাজাইন, সিরিয়ান বাজেলা এবং তারকিস সাকসুকা। এছাড়া ইফতার ও সাহরির অন্যান্য আরও আইটেমের মধ্যে রয়েছে কেশরের জিলাপি, লাচ্ছি, বিভিন্ন দেশের ঐতিহ্যবাহী মিষ্টি, শাহী হালিম, সর্ষে ইলিশ, চিকেন আচারি,  নেহারি, বিরিয়ানী, সালাদসহ অন্য মুখরোচক খাবার। এখানে আসা ভোজনরসিকরা লাইভ কিচেনে তাদের ইফতার সামগ্রীর রান্না দেখার সুযোগ পাবেন। এছাড়া কেউ যদি এই পাঁচ তারকা হোটেলের রেস্টুরেন্ট থেকে বাড়িতে খাবার নিয়ে যেতে চান সেই সুযোগও এখানে আছে। ওয়েস্টিন কর্তৃপক্ষ জানান, বর্তমানে লেভেল ২ ও লেভেল ৫ এ দুটি ফ্লোরে ইফতার ও সাহরি পরিবেশন করা হচ্ছে। বর্তমানে ‘বাই ওয়ান গেট ওয়ান ফ্রি’ অফার দেওয়ায় ইফতারে এই হোটেলে ভোজনরসিকদের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। ইফতার করতে প্রতিদিন ১২০ থেকে ৪০০ জন মানুষ ওয়েস্টিনে যাচ্ছেন। পাঁচ তারকা এই হোটেলের ‘সিজনাল টেস্ট’ নামক ব্যুফে রেস্টুরেন্ট-এ  ইফতার করতে এক একজনকে খরচ করতে হবে ৬ হাজার ৯৯০ টাকা। এই টাকায় রাতের খাবারও অন্তর্ভুক্ত আছে। ইফতারের সময়সূচি শুরু হয় বিকাল ৫টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত। আর সাহরির জন্য এক একজনকে খরচ করতে হবে ৩ হাজার ৫০০ টাকা। সাহরিতে সাধারণত হালকা ধরনের খাবার খাওয়ানো হয় যাতে হজমে সুবিধা হয়। সাহরির সময় রাত ১টা থেকে ফজরের আযানের আগ পর্যন্ত।  এছাড়া ‘এসপ্ল্যাস’ নামক আরেকটি ব্যুফে রেস্টুরেন্ট-এ ভোজনরসিকরা পুলসাইড-এ বসে ব্যুফে ইফতার ও ডিনার করার সুযোগ পাবেন। এজন্য এক একজনকে খরচ করতে হবে ৪ হাজার ৫০০ টাকা।  ওয়েস্টিনের দুটো ব্যুফে রেস্টুরেন্টই রমজানের আবহে সাজানো হয়েছে। ব্যুফে রেস্টুরেন্টে খাবার পরিবেশনার মধ্যেও  রমজানের সেই আবহ রয়েছে। যেহেতু ইফতার ও সাহরিতে অনেক সময় ভিড় বেড়ে যায় এজন্য কেউ চাইলে রিজার্ভেশনের জন্য  আগে থেকেও ওয়েস্টিনের হটলাইনে  ফোন দিতে পারেন।


আপনার মন্তব্য