Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:৪৪

শেষ হলো গঙ্গা-যমুনা নাট্যোৎসব

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

শেষ হলো গঙ্গা-যমুনা নাট্যোৎসব

চার মিলনায়তনে চার নাটক মঞ্চায়ন ও দুই মঞ্চে নাচ, গান, আবৃত্তিসহ নানা সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শিল্পকলা একাডেমি ও মহিলা সমিতিতে শেষ হলো দশ দিনের ‘গঙ্গা-যমুনা’ নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯। গঙ্গা-যমুনা নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব পর্ষদের আয়োজনে এটি ছিল উৎসবের অষ্টম আসর। এর মধ্যে সমাপনী সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হয় আরণ্যক নাট্যদলের নাটক ‘ময়ূর সিংহাসন’, পরীক্ষণ থিয়েটার হলে মঞ্চায়ন হয় সময় প্রযোজিত নাটক ‘ভাগের মানুষ’ ও স্টুডিও থিয়েটার হলে মঞ্চায়ন হয় থিয়েটার ৫২ প্রযোজিত নাটক ‘নননপুরের মেলায় একজন কমলাসুন্দরী ও একটি বাঘ আসে’। একই সময়ে বেইলি রোডের মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হয় থিয়েট্রন ঢাকা প্রযোজিত নাটক ‘সিচুয়ানের সুকন্যা’। সন্ধ্যা ৭টায় নাটক মঞ্চায়নের আগে বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত একাডেমির উন্মুক্ত মঞ্চ ও সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে নাচ, গান, আবৃত্তি ও পথনাটক পরিবেশন করে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন ও প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীরা। গত ১১ অক্টোবর শিল্পকলা একাডেমির পাঁচ মঞ্চ ও মহিলা সমিতির মঞ্চসহ রাজধানীর ছয় মঞ্চে শুরু হয় দশ দিনের এই নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসবে। বাংলাদেশ ও ভারতের ১২১টি নাট্য ও সাংস্কৃতিক দলের সাড়ে তিন হাজার শিল্পী উৎসবে অংশ নিয়েছে।

আজ শুরু হচ্ছে মহাকালের ‘বাংলা নাট্যোৎসব’ : মহাকাল নাট্যসম্প্রদায়ের তিন যুগপূর্তি উদযাপনে আজ রাজধানীর চার মঞ্চে একযোগে শুরু হচ্ছে ‘বাংলা নাট্যোৎসব ২০১৯’। উৎসবে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশের ২৩টি ও ভারতের ৫টি নাট্যদল। এই উৎসবে মঞ্চায়ন হবে মোট ৩১টি নাটক। সন্ধ্যা ৬টায় শিল্পকলা একাডেমিতে যৌথভাবে এই নাট্যোৎসবের উদ্বোধন করবেন ত্রিপুরার চিফ হুইপ কল্যাণী রায়, বাংলাদেশের রামেন্দু মজুমদার ও আতাউর রহমান। শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তন ও পরীক্ষণ থিয়েটার হল, মহিলা সমিতির ড. নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তন এবং দনিয়ার স্টুডিও থিয়েটার হলে মঞ্চায়ন হবে উৎসবের নাটকগুলো। উদ্বোধনী আলোচনা শেষে জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হবে মহাকাল নাট্যসম্প্রদায়ের নাটক ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’, পরীক্ষণ থিয়েটার হলে নাট্যচক্রের ‘একা এক নারী’ এবং মহিলা সমিতি মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হবে ব্যতিক্রম নাট্যগোষ্ঠীর নাটক ‘তক্ষক’। উৎসব সহযোগিতায় রয়েছে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ও সবুজ ছায়া। ৩০ অক্টোবর শেষ হবে দশ দিনের এ নাট্যোৎসব।


আপনার মন্তব্য