শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ নভেম্বর, ২০১৯ ০১:২৪

চীনে ভিডিও গেমের ওপর কারফিউ জারি

অনলাইন ডেস্ক

চীনে ভিডিও গেমের ওপর কারফিউ জারি
ফাইল ছবি

চীন বিশ্বে অনলাইন ভিডিও গেমিং এর দ্বিতীয় বৃহত্তম বাজার হিসেবে পরিচিত। ভিডিও গেম নিয়ে কড়া ভূমিকা নিয়েছে চীনা সরকার। অপ্রাপ্তবয়স্কদের অনলাইন গেম খেলার ওপর কারফিউ জারি করা হয়েছে দেশটিতে। এর ফলে যাদের বয়স ১৮ বছরের কম, তারা রাত দশটা থেকে সকাল আটটার মধ্যে কোনও অনলাইন গেম খেলতে পারবে না।

নিয়মে বলা হয়েছে, সারা সপ্তাহ জুড়ে সারা দিনে দেড় ঘন্টার বেশি ও সাপ্তাহিক ছুটি বা অন্য ছুটির দিনে তিন ঘন্টার বেশি এই ধরণের গেম খেলা যাবে না। ভিডিও গেমের প্রতি প্রবল আসক্তি দেখা গিয়েছে চীনা শিশু ও কিশোরদের মধ্যে। এই আসক্তি কাটাতেই এমন ভূমিকা নিয়েছে চীনা সরকার৷। বিভিন্ন ভিডিও গেম শিশুদের স্বাস্থ্যের ক্ষতি করছে বলে মনে করছেন বিষেজ্ঞরা।

খবর অনুযায়ী, শিশুদের মধ্যে দৃষ্টিক্ষীণতার সমস্যা বেড়ে যাওয়ার পর চীন সরকার এই পদক্ষেপ নেয়। অতিরিক্ত গেম খেললে এমন হতে পারে বলেই আশংকা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এবার শিশুদের অনলাইনে গেম খেলার ওপর ব্যাপক কড়াকড়ি আরোপ করেছে সরকার। সরকারের এই কড়াকড়িকে কারফিউ হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে। 

ইতিমধ্যেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রথমবারের মতো গেমিং'র আসক্তিকে একটি মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করে। তারপরেই নড়েচড়ে বসে চীনা সরকার। নিষেধাজ্ঞা জারি করে বলা হয়, অনলাইন গেম খেলতে হলে ব্যবহারকারীদের বয়স আগে যাচাই করতে হবে। তারপরে আইনের আওতায় সবটা খতিয়ে দেখতে হবে৷। র জন্য সরকারি তথ্যভাণ্ডার থেকে তথ্য সংগ্রহ করবে সরকার৷

দেশটির নতুন আইন অনুযায়ী, ১৮ বছরের কম বয়সী কিশোররা রাত ১০টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত অনলাইনে গেম খেলতে পারবে না। সারাদিনে তারা মাত্র ৯০ মিনিট গেম খেলতে পারবে। আর তরুণরা অনলাইনে টাকা দিয়ে গেম খেলার ক্ষেত্রে প্রতি মাসে তাদের ২৮ ডলার (২,৩৭৫ টাকা) ব্যয় করতে হবে। তবে ১৬ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের গেম খেলতে খরচ পড়বে ৫৬ ডলার (৪,৭৫০ টাকা)।


বিডি-প্রতিদিন/ সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য