শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা
অনুপ্রেরণীয়

মহাকাশ স্টেশনে যাচ্ছেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী

শনিবারের সকাল ডেস্ক

মহাকাশ স্টেশনে যাচ্ছেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী

বিশ্বের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী নভোচারী হিসেবে মহাকাশ স্টেশনে যাচ্ছেন জেসিকা ওয়াটকিন্স। ২২ বছর আগে ১৯৯৮ সালের নভেম্বরে মহাকাশে পৃথিবীর কক্ষপথে মানুষের বসবাসযোগ্য কৃত্রিম উপগ্রহ ‘ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশন’কে (আইএসএস) পাঠানো হয়। এরপর দুই দশকের বেশি সময় কেটে গেছে। এই প্রথম আইএসএস-এ দীর্ঘ কোনো মিশনের জন্য যাচ্ছেন প্রথম কোনো কৃষ্ণাঙ্গ নারী নভোচারী জেসিকা। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা এক ঘোষণায় জানিয়েছে, আগামী বছেরের এপ্রিলে স্পেসএক্স ক্রু-৪ মিশনের অন্যতম অভিযাত্রী জেসিকা। মহাকাশে অবশ্য আগেও পা রেখেছেন কৃষ্ণাঙ্গ নারী নভোচারী। তবে তা দীর্ঘ সময়ের জন্য নয়। ১৯৯২ সালে স্পেস শাটল এনডেভারে মহাকাশে পাড়ি দিয়েছিলেন প্রথম আমেরিকান-আফ্রিকান নারী মে জেমিসন। আর গত বছর আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে গিয়েছিলেন মার্কিন নভোচারী ভিক্টর জে গ্লোভার। তিনি ছিলেন আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে যাওয়া প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নভোচারী। তার পথ ধরে এবার প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী হিসেবে মহাকাশ স্টেশনে যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন জেসিকা। তিনি নাসার চন্দ্র অভিযান প্রকল্পের সঙ্গেও যুক্ত রয়েছেন। ২০২৫ সালের মধ্যে প্রথম নারী হিসেবে তিনি চাঁদের পৃষ্ঠে অবতরণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে গ্লোভার ও জেসিকার আগে নাসার পক্ষ থেকে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তি হিসেবে মহাকাশে যাওয়ার কথা ছিল জেনেত্তে এপসের। ২০১৮ সালে নভোচারী হিসেবে তার নাম ঘোষণা করেছিল নাসা। তবে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের পথে নির্ধারিত যাত্রার মাত্র ছয় মাসের কম সময় আগে তার নাম বাদ পড়ে। ওই ঘটনার পর জেনেত্তে এপসের ভাই নাসার বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ তুলেছিলেন। কিন্তু সেই অভিযোগ মিথ্যে হয়ে গেল ‘আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের উদ্দেশে রওনা দেবে জেসিকা’ এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে।

সর্বশেষ খবর