Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৫৩

ওয়ালশ বরণের অপেক্ষায় মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ওয়ালশ বরণের অপেক্ষায় মাশরাফি

মুদাসসর নজর, ট্রেভর চ্যাপেল, ডেভ হোয়াটমোর, স্টুয়ার্ট ল’-সবাই ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের হেড কোচ। এখন কোচ চন্ডিকা হাতুরাসিংহে। সবাই টেস্ট, ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেছেন নিজ নিজ দেশের হয়ে। সবাই ক্রিকেট বিশ্বে পরিচিত মুখ। কিন্তু ক্রিকেট ক্যারিয়ারের বিবেচনায় এদের সবাইকে ছাড়িয়ে ক্যারিবীয় ক্রিকেট লিজেন্ড কোর্টনি ওয়ালশ। ক্রিকেটের সজ্জন লোক কবলে পরিচিত ওয়ালশ এখন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পৃক্ত এক নাম। বিসিবি ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত ওয়ালশকে টাইগারদের বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং, কিংবা হেড কোচের তুলনায় বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে হেভিওয়েট কোচ ওয়ালশ। ওয়ালশ আবার টাইগার ওয়ানডে ও টি-২০ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার ‘আইডল’ ক্রিকেটার। আইডল ক্রিকেটারকে বরণ করতে মুখিয়ে আছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি। টি-২০ বিশ্বকাপের পর হঠাৎ সরে দাঁড়ান বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক। স্ট্রিক সরে দাঁড়ানোয় বিসিবি ব্যস্ত হয়ে পড়ে বোলিং কোচ নিয়োগ দিতে। শুরুতে যোগাযোগ করে পাকিস্তানের আকিব জাভেদের। কিন্তু ব্যক্তিগত কারণে আকিব আসতে রাজি না হওয়ায় ওয়ালশকে বেছে নেয় বিসিবি। গতকাল বিসিবি আনুষ্ঠানিকভাবে ওয়ালশের নাম ঘোষণা করে বোলিং কোচ হিসেবে। ‘ওয়ালশকেই বেছে নিচ্ছে বিসিবি’-শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয় ১২ আগস্ট বাংলাদেশ প্রতিদিনে। ওয়ালশের মতো ক্রিকেটারকে কোচ পেয়ে উচ্ছ্বসিত মাশরাফি, ‘ওয়ালশের মতো হাই প্রোফাইল ক্রিকেটার আমাদের কোচ, এটা অনেক বড় ব্যাপার। তার সঙ্গে ড্রেসিং রুম শেয়ার করাটা অনেক বড় বিষয়। শুধু বোলাররা নন, দলের অন্য ক্রিকেটাররাও উপকৃত হবেন। আমি তার কাছ থেকে সর্বোচ্চটাই আশা করছি। বাকি আল্লাহর ইচ্ছা।’

নিজে একজন ফাস্ট বোলার। জাতীয় দলের হয়ে নিয়মিত খেলছেন। প্রতিপক্ষ হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও খেলেছেন। সেই ক্যারিবীয় দলের লিজেন্ডারি ফাস্ট বোলার ওয়ালশ সব সময়কার ‘আইডল’ বোলার মাশরাফির। ‘আইডল’ ক্রিকেটারকে কোচ হিসেবে পেয়ে যারপরনাই খুশি টাইগার অধিনায়ক, ‘ছোটবেলা থেকেই আমি ওয়ালশের ফ্যান। সে আমার বরাবরের ‘আইডল’ ক্রিকেটার। বোলিং কোচ হিসেবে যেহেতু তাকে পাব, তাই ওনার কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। আইডল ক্রিকেটারের সঙ্গে ড্রেসিং রুম শেয়ার করতে পারাটা অনেক বড় বিষয়। আইডল ক্রিকেটারের সঙ্গে থাকতে পারব ভেবে আমি রোমাঞ্চিত।’

বাংলাদেশ এখন ওয়ানডে ক্রিকেটের অন্যতম শক্তিশালী দল। যে কোনো দলের বিপক্ষে যখন তখন ম্যাচ জেতার সামর্থ্য রয়েছে টাইগারদের। অথচ বিপরীত অবস্থান টেস্ট ক্রিকেটে। ওয়ালশ ওয়ানডে ক্রিকেটের চেয়ে টেস্ট ক্রিকেটে অনেক বেশি সফল। ওয়ানডে ২২৭ উইকেটের পাশাপাশি টেস্টে তার উইকেট সংখ্যা ৫১৯। এমন একজন ক্রিকেটারকে কোচ হিসেবে পাওয়াটা অনেক বড় মনে করছেন মাশরাফি।


আপনার মন্তব্য