Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৫ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ এপ্রিল, ২০১৭ ২৩:২৮

কুশলের ব্যাটে শ্রীলঙ্কার জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক

কুশলের ব্যাটে শ্রীলঙ্কার জয়
দলীয় শূন্য রানে ওপেনার তামিম আউট হয়ে গেলেও সৌম্য ও সাব্বির জুটি অনবদ্য ব্যাট করে মাত্র ২৯ বলে ৫৭ রান তোলেন। তার পরও বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৫৫— শেষ পর্যন্ত এই টার্গেট শ্রীলঙ্কা ৬ উইকেট হাতে রেখেই জিতে যায়। আগামীকাল শেষ টি-২০ ম্যাচ —এএফপি

সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার যতক্ষণ উইকেটে ছিলেন লঙ্কান বোলাররা বল ফেলার জায়গা খুঁজে পাচ্ছিলেন না। বাউন্ডারির বন্যা বইয়ে দিচ্ছিলেন দুই তারকা। দ্বিতীয় উইকেটে তাদের জুটিতে মাত্র ২৯ বলে আসে ৫৭ রান। ওভারপ্রতি রান এসেছে ১১.৭৯ গড়ে। ৪.৪ ওভারেই বাংলাদেশের দলীয় রান অর্ধশতক হয়ে যায়। টি-২০-তে খুব কম ম্যাচেই এমন দাপুটে শুরু করতে পেরেছে বাংলাদেশ। তার পরও শেষটা ভালো হয়নি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৫৫ রানের বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৫৬ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ৭ বল হাতে রেখেই ৬ উইকেটে জিতে যায় শ্রীলঙ্কা। ৭৭ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন লঙ্কান ব্যাটসম্যান কুশল পেরেরা। দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ১-০-তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা। একই ভেন্যুতে আগামীকাল দ্বিতীয় ম্যাচে লঙ্কানদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

গতকাল টাইগারদের ইনিংসের শুরুটাই হয়েছিল দুঃস্বপ্নের মধ্য দিয়ে। প্রথম ওভারেই বাংলাদেশের ইনিংসে আঘাত হানেন লাসিথ মালিঙ্গা। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই সরাসরি বোল্ড করেন তামিম ইকবালকে। উইকেটে থিতুই হতে পারেননি ড্যাসিং ওপেনার। মালিঙ্গার অসাধারণ এক ডেলিভারিতে বোকা বনে যান। অবশ্য এমন আউটে ব্যাটসম্যানের করার কিছু থাকে না। অফ-স্টাম্পের বল সুইং করে মিডল-স্টাম্পে চলে যায়। মালিঙ্গার ওই ওভারে বিভ্রান্ত হয়ে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার! সাব্বিরের ক্যাচটি পড়ে নো-ম্যানস-ল্যান্ডে আর সৌম্যর দেওয়া সহজ ক্যাচ ফলশ্রু থেকে ধরতে পারেননি মালিঙ্গা। পরের স্পেলে মালিঙ্গা যখন বোলিং করতে আসেন তার ওভার থেকেই সাব্বির-সৌম্য মিলে নিয়েছেন ১৭ ওভার। তবে রান তোলার সাইক্লোন গতিটা থামিয়ে দেন লঙ্কান ফিল্ডার প্রসন্ন। দুর্দান্ত এক থ্রোতে সাব্বির রহমানকে রান আউটের ফাঁদে ফেলে দেন। একই ওভারে সৌম্য সরকারকেও ফিরিয়ে দেয় শ্রীলঙ্কা। দুই তাণ্ডবে ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দিয়ে ম্যাচের লাগাম হাতের মুঠোয় নিয়ে নেয় শ্রীলঙ্কা। মুশফিক-সাকিব উইকেটে গিয়েও কাল সুবিধা করতে পারেননি। দ্রুতই আউট হয়ে যান। ৫৭/১ থেকে হঠাৎ স্কোর হয়ে যায় ৮২/৫। তার পরও শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর ১৫৫ হয়েছে ষষ্ঠ উইকেট জুটি মোসাদ্দেক ও মাহমুদুল্লাহ মিলে ৫৭ রানের জুটি গড়ায়। তবে প্রেমাদাসার ব্যাটিংস্বর্গে জয়ের জন্য এই স্কোর যথেষ্ট ছিল না। তারপর বোলারাও সুবিধা করতে পারেননি। ফিল্ডিংও মিস হয়েছে। সে কারণেই সহজ জয় পায় শ্রীলঙ্কা।


আপনার মন্তব্য