শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ এপ্রিল, ২০১৬ ২৩:৪৯

তেলের দাম কমলেও কমেনি পরিবহন ভাড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের বাজারে রবিবার মধ্যরাত থেকে সব ধরনের জ্বালানি তেলের দাম কমানো হলেও এখন পর্যন্ত গণপরিবহনের ভাড়া কমানো হয়নি। এ ব্যাপারে সরকারের সংশ্লিষ্ট মহল বা বাস মালিকদের পক্ষ থেকে কোনো সিদ্ধান্তও আসেনি। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমার বহুদিন পর হলেও বাংলাদেশে অবশেষে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ায় গ্রাহকরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন পেট্রলপাম্পে নতুন মূল্যে তারা তেল সংগ্রহ করেন। এ অবস্থায় জনস্বার্থে পরিবহন যাত্রীরা বাস ভাড়া কমানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। যাত্রীরা বলেন, প্রতিবার তেলের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির তোড়জোড় শুরু হয়। সে সময় সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে বেশি টাকা আদায় করা হয়।

গণপরিবহনের যাত্রীরা গতকাল এই প্রতিবেদকের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভাড়া কমানোর কথা বলতেই বাস মালিকরা এমন ভাব করছেন যেন তারা তেলের দাম কমানোর বিষয়টি সম্পর্কে কিছু জানেনই না। অথচ প্রতিবার তেলের দাম বাড়ানোর সঙ্গেই আমাদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করতে তারা ভোলেন না। যাত্রীরা অভিযোগ করে বলেন, তেলের দাম বৃদ্ধি পেলে নিত্যপ্রয়োজনীয় অন্যান্য দ্রব্যেরও দাম বৃদ্ধি পায়, অথচ দাম কমলে এর কোনো প্রভাব দেখা যায় না। ফার্মগেট বাসস্ট্যান্ড থেকে মতিঝিলগামী বিহঙ্গ পরিবহনের যাত্রী নাজমুল শরিফ বলেন, প্রথমত বাস কোম্পানিগুলো দূরত্ব হিসেবে যে ভাড়া নির্ধারণ করে, তা যৌক্তিক নয়। এর ওপর তেলের দাম কমার পরও বাসভাড়া কমানোর বিষয়ে তারা অনাগ্রহী। যদিও তেলের দাম কমানোর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছিলেন, জ্বালানি তেলের দাম কমলে বাস ভাড়াও কমানো হবে। কিন্তু এ বিষয়ে গতকাল পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। এমনকি এ বিষয়ে বাস মালিক সমিতির নেতারাও গণমাধ্যমকে এড়িয়ে গেছেন। মিরপুর জিয়া কলোনিতে সুমাত্রা ফিলিং স্টেশনে মোটরসাইকেলে অকটেন নেওয়ার সময় কথা হয় ব্যবসায়ী জাকির হোসেনের সঙ্গে। তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন, একেবারে দাম না কমানোর চেয়ে অল্প দাম কমানোর বিষয়টিকে আমরা সাধুবাদ জানাচ্ছি। আশা করি পরবর্তীতে আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশে জ্বালানি তেলের দাম আরও কমানো হবে। প্রসঙ্গত, গত রবিবার মধ্যরাত থেকে লিটারপ্রতি অকটেন ৮৯, পেট্রল ৮৬ এবং ডিজেল ও কেরোসিন ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর