শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ মার্চ, ২০১৯ ২৩:২৮

তৃণমূলে স্বাস্থ্যসেবা

নিজেই গুরুতর রোগী

ডোমার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

আবদুল বারী, নীলফামারী

নিজেই গুরুতর রোগী

জনবল সংকট আর প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি না থাকায় নিজেই গুরুতর রোগী হয়ে আছে নীলফামারীর ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ফলে রোগাক্রান্ত মানুষের  চিকিৎসায় এ কমপ্লেক্সের তেমন কিছু করার থাকে না। বর্তমানে কমপ্লেক্সটিতে ২২ জন চিকিৎসকের স্থলে রয়েছেন মাত্র ৫জন।

জানা গেছে, ২০১০ সাল থেকে মেডিকেল অফিসার ডাক্তার শওকত আলী শাফায়াত অনুপস্থিত। জুনিয়র কনসালটেন্ট কার্ডিওলজি ডাক্তার রেজাউল আলম  ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত থাকলেও  ডেপুটিশনে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে কর্মরত রয়েছেন। জুনিয়র কনসালটেন্ট শিশু ডাক্তার মোয়জ্জেম হোসেন ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত থাকলেও ডেপুটিশনে তিন দিন নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে রোগী দেখচ্ছেন। এ কারণে তৈরি হয়েছে উভয় সংকট। তাদের তুলে আনায় গ্রামাঞ্চলের রোগীরা চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এদিকে টিকিট মিললেও রোগীরা খুঁজে পান না চিকিৎসকদের। সবমিলিয়ে এভাবেই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। নষ্ট হওয়ার কারণে আলট্রাসনোগ্রাম মেশিন ও ডিজিটাল এক্স-রে মেশিন চলছে না। অ্যানেসথেসিয়া ও মেডিসিন কনসালটেন্ট না থাকায় গর্ভবতী মায়েদের সিজার বন্ধ রয়েছে। এতে গ্রামাঞ্চলের মানুষের  দুর্ভোগ বেড়েছে। এই সুযোগে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ও ডোমার উপজেলায় জমে উঠেছে বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চিকিৎসা বাণিজ্য। প্রতিনিয়ত এসব বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রে গিয়ে প্রতারিত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। ডোমার উপজেলার প্রায় ৩ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে শহর থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে ২১ বিঘা জমির উপর ১৯৬২ সালে নির্মাণ করা হয় ৩১ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ২০০৭ সালে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হলেও নির্মাণ করা হয়নি প্রয়োজনীয় অবকাঠামো। বাড়ানো হয়নি জনবল। দেওয়া হয়নি চিকিৎসা সামগ্রী। শয্যা-স্বল্পতার কারণে প্রতিদিনই হাসপাতালের মেঝেতে কষ্ট করে রোগীদের থাকতে হয়। ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. মেহেফুজ আলী বলেন, ডোমার ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  মঞ্জুরীকৃত পদ ২২ টি, কর্মরত আছেন ৫ জন, শূন্য ১৭ টি পদ। এখানে ২ জন কনসালটেন্ট, ২ জন মেডিকেল অফিসার ও একজন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার কর্মরত আছেন। 


আপনার মন্তব্য