শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৪৫

মাসের ব্যবধানে মৃত্যু আট গুণ সংক্রমণ ছয় গুণ বেড়েছে

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৫৬৮৩, মৃত্যু ৫৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

মাসের ব্যবধানে মৃত্যু আট গুণ সংক্রমণ ছয় গুণ বেড়েছে
Google News

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণে মার্চের তুলনায় এপ্রিলে এসে সংক্রমণ হার বেড়েছে ছয় গুণ। রোগী শনাক্ত বেড়েছে ১১ গুণ ও মৃত্যু বেড়েছে আট গুণের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার ৬৮৩ জন ও মারা গেছেন ৫৮ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যে দেখা গেছে, মার্চের প্রথম তিন দিনে দেশে করোনায় মোট মারা গেছেন ২০ জন। এপ্রিলের প্রথম তিন দিনে মারা গেছেন ১৬৭ জন। মাসের ব্যবধানে মৃত্যু বেড়েছে ৮ দশমিক ৩৫ গুণ। মার্চের তুলনায় এপ্রিলের তিন দিনে বেশি মারা গেছেন ১৪৭ জন। গড়ে দৈনিক বেশি মৃত্যু হয়েছে ৪৯ জনের। অন্যদিকে মার্চের তিন দিনে গড় সংক্রমণ হার ছিল ৩ দশমিক ৮০ শতাংশ। এপ্রিলে এসে সেটা দাঁড়িয়েছে ২৩ দশমিক ১২ শতাংশে। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ হাজার ৫৪৮টি নমুনা পরীক্ষায় সংক্রমণ হার পাওয়া গেছে ২৩ দশমিক ১৫ শতাংশ। মাসের ব্যবধানে গড় সংক্রমণ হার বেড়েছে ১৯ দশমিক ৩২ শতাংশ বা ৬ গুণ। একই সময়ের ব্যবধানে রোগী শনাক্ত বেড়েছে ১১ গুণ। মার্চের তিন দিনে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয় ১ হাজার ৭১৪ জন। এপ্রিলের তিন দিনে শনাক্ত হয়েছে ১৮ হাজার ৯৮২ জন। দৈনিক গড় শনাক্ত বেড়েছে ৫ হাজার ৭৫৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ হাজার ৩৬৪ জন, যা একই সময়ে শনাক্ত নতুন রোগীর চেয়ে ৩ হাজার ৩১৯ জন কম। সুস্থতার চেয়ে শনাক্ত বেড়ে যাওয়ায় পূর্ণ হয়ে যাচ্ছে হাসপাতালগুলো। গতকাল রাজধানীর ১০টি সরকারি হাসপাতালের ১১৮টি আইসিইউর মধ্যে ফাঁকা ছিল মাত্র তিনটি। নয়টি বেসরকারি হাসপাতালের ১৮৮টি আইসিইউর মধ্যে ফাঁকা ছিল ৪১টি। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৩০ হাজার ২৭৭ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৯ হাজার ২১৩ ও সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৪৯ হাজার ৭৭৫ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৭ দশমিক ২৩ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৬ শতাংশ। এদিকে আগের সপ্তাহের তুলনায় গত সপ্তাহে (২৮ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল) মৃত্যু বেড়েছে ৭১ দশমিক ১৪ শতাংশ ও রোগী শনাক্ত বেড়েছে ৬৬ দশমিক ৫৪ শতাংশ। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৮ জন পুরুষ ও ২০ জন নারী মারা গেছেন করোনায়। সবার মৃত্যু হয়েছে হাসপাতালে। বয়স বিবেচনায় মৃতদের মধ্যে ৩৪ জনই ছিলেন ষাটোর্ধ্ব। এ ছাড়া ১৬ জন পঞ্চাশোর্ধ্ব, চারজন চল্লিশোর্ধ্ব ও চারজনের বয়স ছিল ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। এর মধ্যে ৩৯ জন ঢাকা, ১২ জন চট্টগ্রাম, তিনজন খুলনা, দুজন বরিশাল এবং একজন করে রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর