৭ জুলাই, ২০২২ ১৩:১২

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ফাঁকা

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ফাঁকা

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জ অংশে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। আসন্ন ঈদ উপলক্ষে যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে গতকাল বুধবার সারাদিন মহাসড়কে যানজট থাকলেও আজ ভিন্নরূপ দেখা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মহাসড়কের সাইনবোর্ড, শিমরাইল মোড়, কাঁচপুর, মদনপুর এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে এমনই চিত্র দেখা গেছে। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, যানবাহনের চাপ থাকলেও গাড়িগুলো স্বাভাবিকভাবে গন্তব্যস্থলে পৌঁছাচ্ছে। এদিকে গতকালের তুলনায় আজ মহাসড়কে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আরো কঠোর ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে। কোনো যানবাহনকে অযথা পার্কি ও যত্রতত্র স্ট্যান্ড করতে দিচ্ছে না।

জব্বার মিয়া নামে এক ট্রাকচালক জানান, গতকাল তীব্র যানজট থাকলে আজ তেমন যানজট দেখছি। গতকাল মেঘনাঘাট টোলপ্লাজা থেকে শিমরাইল মোড়ে আসতে প্রায় ২ ঘণ্টা সময় লেগেছিল। কিন্তু আজ যানজট না থাকায় মাত্র ৫০ মিনিটে শিমরাইল মোড়ে চলে এসেছি।

তুষার মাহমুদ নামে এক যাত্রী জানান, গতকাল সারাদিন তীব্র যানজট থাকায় পরিবারকে গ্রামে পাঠাইনি। আজ মহাসড়কে এসে দেখছি রাস্তা অনেকটাই ফাঁকা। তাই পরিবারকে আজই গ্রামে পাঠিয়ে দিব। তবে বাসে ভাড়া একটু বেশি নিচ্ছে বলে যোগ করেন তিনি। 

বেসরকারি পরিবহনের চালক রিয়াজুল হাসান জানান, রাস্তা ফাঁকা থাকায় আজ খুব স্বাচ্ছন্দেই গন্তব্যস্থলে যেতে পারবো আশা করছি। ঈদ আগ পর্যন্ত রাস্তা এমন যানজটমুক্ত থাকলে আমাদের কোনো ভোগান্তির শিকার হতে হবে না।

কাচঁপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নবীর হোসেন বলেন, আজ মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো যানজট নেই। আশা করছি, ঈদের আগ পর্যন্ত কোনো যানজটের সমস্যা হবে না। 

হাইওয়ে পুলিশের শিমরাইল ক্যাম্পের (ইনচার্জ) টিআই একেএম শরফুদ্দীন বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যেন যানজট না হয় এজন্য আমাদের হাইওয়ে পুলিশের গাজীপুর রিজিয়ন এর এসপি আলী আহমদ খানের কঠোর নির্দেশনা রয়েছে। পুলিশের প্রতিটি সদস্য যানজট নিরসনে পয়েন্টে পয়েন্টে কাজ করে যাচ্ছেন। 

তিনি আরো জানান, যানজট নিরসনে কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশের ৩৫টি টিম কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর