শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৯:৪১

কেন্দুয়ায় ২০ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

কেন্দুয়ায় ২০ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার
প্রতীকী ছবি

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলা পৌর এলাকায় মাত্র ২০ ঘণ্টার ব্যবধানে সাবেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকাল ৮টার দিকে সাউপাড়া এলাকার মোখলেছুর রহমানের মেয়ে রিম্বি আক্তারের লাম নিজ বাসার রান্না ঘরের ধর্নায় গলায় ওড়না প্যাচানো অবস্থায় উদ্ধার করে কেন্দুয়া থানার পুলিশ। সে সাবেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী।

এর আগে, মঙ্গলবার দুপুরের দিকে শান্তিবাগে ভাড়া বাসার বসত ঘরের আড়ায় গলায় ওড়না প্যাচানো অবস্থায় একই বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী খিদিরপুর গ্রামের মাসুদ রানার মেয়ে পুস্পিতা মেহরিনকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ উভয়ের লাশই ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানায় পৃথক ২টি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। কিন্তু কেনো এমন মৃত্যু তার কোনো কারণ এখনও জানা যায়নি।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) মাহমুদুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কেন্দুয়া পৌরসদরের শান্তিবাগস্থ ভাড়া বাসায় সান্দিকোনা ইউনিয়নের খিদিরপুর গ্রামের মাসুদ রানার মেয়ে ৭ম শ্রেণির ছাত্রী পুষ্পিতা মেহরিন শ্রেয়ার লাশ গলায় ওড়না পেঁছানো অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টার দিকে কেন্দুয়া পৌরসদরের সাউদপাড়াস্থ নিজ বাসার রান্না ঘরের ধর্নার সঙ্গে গলায় উড়না পেঁছানো সাবেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী রিম্বি আক্তারেরও ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রিম্বি সাউদপাড়া মহল্লার মুখলেছুর রহমানের মেয়ে।

মাহমুদুল হাসান আরও বলেন, আমরা তদন্ত চালিয়েছি। লাশের সুরতহাল রিপোর্টে আত্মহত্যা বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুখলেছুর রহমান বাঙালির সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে শিক্ষার্থীদের পরিবার থেকে কোনো অভিযোগ উঠেনি।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য