শিরোনাম
প্রকাশ : ১ এপ্রিল, ২০২০ ০৩:৩১

কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষে দুই ভাই নিহত

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষে দুই ভাই নিহত
প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ক্রিকেট খেলা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নেহেদ আলী (৫৫) ও বকুল আলী (৬০) নামে আপন দুই ভাই নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ১০জন। 

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামে এ সংঘর্ষ ঘটে। আহতদের মধ্যে ৫ জনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। আহতদের নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি। নিহত দুই সহোদর পাহাড়পুর গ্রামের চাঁদ আলীর ছেলে।

স্থানীয় বাঁধ বাজার পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এস আই রাশেদ জানান, গত সোমবার বিকেলে পাহাড়পুর গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে রাজুর সাথে একই গ্রামের বাবুল শেখের ছেলে ইসতাক আহম্মেদ তুলন, উল্লাস এবং মোক্তার আলীর ছেলে নাহিদের ক্রিকেট খেলা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর সূত্র ধরে ইসতাক আহম্মেদ তুলন তার ছোট ভাই উল্লাস এবং নাহিদকে আটক করে বাঁধ বাজার ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে দুই পক্ষের অভিভাবকদের উপস্থিতিতে আটককৃত তিনজনকে তাদের অভিভাবকদের কাছে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে তারা গ্রামের ফিরে সংঘর্ষ বাধায়। 

অপরদিকে যাদের ক্যাম্পে ধরে নিয়ে আসা হয়েছিলো তাদের অভিভাবকদের অভিযোগ, স্থানীয় পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এস আই রাশেদ ও টু আইসি গৌতম কুমার টাকার বিনিময়ে সামান্য ঘটনায় তিন জনকে ক্যাম্পে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে এবং ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে তাদেরকে ছেড়ে দেয়। পরে চাপড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক ও ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ইউপি সদস্য ফিরোজ আহমেদ কটা’র সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ কটার সমর্থক পাহাড়পুর গ্রামের মৃত চাঁদ আলীর ছেলে নেহেদ আলী ও বকুল আলী গুরুতর আহত হন। আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠালে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। 

এ ব্যাপারে কুমারখালী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমি ঘটনাস্থলে আছি। পরে কথা বলছি। 


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য