শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৪৫
প্রিন্ট করুন printer

ফুলবাড়িতে জমি সংক্রান্ত সংঘর্ষে যুবক নিহত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

ফুলবাড়িতে জমি সংক্রান্ত সংঘর্ষে যুবক নিহত
প্রতীকী ছবি

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি উপজেলার ভাঙামোড় ইউনিয়নের খোঁচাবাড়ি এলাকায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহত যুবকের নাম বাহিনুর ইসলাম (৩৫)। সে ভাঙ্গামোড় গ্রামের ছলিম মিস্ত্রির ছেলে। রবিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। 

পরে রাত সাড়ে এগারোটায় ফুলবাড়ি থানায় নিহতের চাচা খলিলুর রহমান বাদী হয়ে ২৮ জনের নামে ও আরও অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এরপরই ইউপি সদস্য সহিদুল পলাতক থাকলেও তার মাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সোমবার দুপুরে তাকে কুড়িগ্রাম জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। 

পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানান, ওই ইউনিয়নের খোঁচাবাড়ী এলাকায় ছলিম মিস্ত্রি তার নিজস্ব দুই একর জমিতে দীর্ঘদিন থেকে চাষাবাদ করে আসছিলেন। কিছুদিন থেকে ওই এলাকার ইউপি সদস্য সহিদুল ইসলাম জমিটির মালিকানা দাবি করে আসছিলেন। রবিবার বিকেল বেলা ছলিম মিস্ত্রি তার ছেলেসহ লোকজন নিয়ে ওই জমির সরিষা তুলতে যান। এসময় ইউপি সদস্য সহিদুলের লোকজন তাদের বাঁধা দিতে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে মারাত্মক সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় আকষ্মিকভাবে সংঘর্ষে বাহিনুর ইসলামকে এলোপাথারি কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায় এবং উভয় পক্ষের আহত হন আরো ১০ জন। তম্মধ্যে দুইজনকে অত্যন্ত আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।পরে রবিবার রাতেই মামলা হলে ১নং আসামী ইউপি সদস্য সহিদুলের মা নবিয়া বেগমকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ি থানার ওসি তদন্ত সারওয়ার পারভেজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরণ করা হয়। সেই সাথে আসামি নবিয়া বেগমকে সোমবার দুপুরে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। ইউপি সদস্য সহিদুলসহ অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর