শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জুন, ২০২১ ২৩:৫০

ঝিনাইদহে তিন মাসের মধ্যে ভোটের নির্দেশ

পদে থাকতে টালবাহানা

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

Google News

ঝিনাইদহ পৌরসভা এবং সদর উপজেলার পাগলাকানাই ও সুরাট ইউনিয়ন পরিষদে তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করতে নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ও নির্বাচন কমিশনকে এ আদেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। ১৫ মার্চ বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেয়। সম্প্রতি রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করা হয়। রায়ে ঝিনাইদহ পৌরসভার মেয়র ও দুই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদও শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। সীমানাসংক্রান্ত জটিলতায় টানা ১১ বছরের বেশি সময় ধরে এসব নির্বাচন আটকে ছিল। তবে দুটি ইউনিয়ন ও পৌরসভার জনপ্রতিনিধিরা নিজ পদ টিকিয়ে রাখতে নানামুখী টালবাহানা শুরু করেছেন। ক্ষমতা ধরে রাখতে ফের তারা উচ্চ আদালতে রিভিউ আবেদন করেছেন বলে জানা গেছে। জানা গেছে, ঝিনাইদহ পৌরসভা এবং সদর উপজেলার পাগলাকানাই ও সুরাট ইউনিয়নে জনপ্রতিনিধিরা তাদের ক্ষমতা হস্তগত করার জন্য কূটকৌশল অবলম্বন করেন। তারা নির্বাচন আটকানোর পথ হিসেবে আদালতে সীমানা জটিলতার মামলা দায়ের করিয়ে দেন। এর ফলে দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচন কমিশন মামলা থাকায় এসব ইউনিয়ন ও পৌরসভায় নির্বাচন করাতে পারে না। অভিযোগ রয়েছে, এসব জায়গায় দীর্ঘদিন নির্বাচন না হওয়ায় কারও কাছে জবাবদিহি থাকে না। ফলে অনিয়ম-দুর্নীতি বেড়ে গেছে। এ ছাড়া ক্ষমতার কাছে জেলা প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ নিতে সাহস পায় না। সম্প্রতি মামলার রায়ে নির্বাচন করার তাগিদ দিলে ঝিনাইদহ পৌরসভা ও দুটি ইউনিয়নে নতুন করে সম্ভাব্য প্রার্থী ও ভোটারদের মধ্যে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়। অনেকে পোস্টার সাঁটানো ও করোনাকালে ভোটারদের মন জয় করতে নানা রকম সাহায্য-সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। কিন্তু রায়ের বিরুদ্ধে ২৪ জুন নতুন করে রিভিউ আবেদন করায় সম্ভাব্য প্রার্থী ও ভোটাররা হতাশ।

এই বিভাগের আরও খবর