Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০৬:৪২

গোধন অমৃত সমান!

অনলাইন ডেস্ক

গোধন অমৃত সমান!
সংগৃহীত ছবি

ভারতের জাতীয় রাজনীতির ক্ষেত্রে অন্যতম বড় উপকরণ হয়ে দাঁড়িয়েছে গরু। বিশেষ করে ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে রাজনীতিতে গরু এবং গোমূত্র মিশে একাকার।  

এবার সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনেও ফের ফিরে এল ‘গোমাতা’। সৌজন্যে সেই বিজেপি।

সোমবার ভোপাল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা দাবি করেছেন যে গোমূত্র থেকে তার ক্যান্সার রোগ সেরে গিয়েছে। ব্রেস্ট ক্যান্সারের মতো মারাত্মক রোগের উপশম হয়ে গিয়েছে গোমূত্রের কারণে।

সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে’কে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি এ কথা জানান।

গোমাতা-গোমূত্র এবং বিজেপি নেতাদের নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। যা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে হিংসাও ঘটে গিয়েছে। এদিন দেশের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা এবং সেখানে গরুর গুরুত্ব নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল সাধ্বী প্রজ্ঞাকে। সেই সময়েই তিনি গরু এবং গোরক্ষা নিয়ে একগুচ্ছ মিন্তব্য করেছেন। গরুর গুরুত্বের কথা তুলে ধরতে নিজেকেই উদাহরণ হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন তিনি।

সোমবার ভোপাল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন সাধ্বী প্রজ্ঞা। এদিন সমাজে এবং মানব জীবনে গরুর গুরুত্ব সম্পর্কে আলোকপাত করেছেন সাধ্বী প্রজ্ঞা। বর্তমানে গুরকে গুরুত্ব দেওয়া হয় না বলেও দাবি করেছেন তিনি। বিষয়টি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক বলে সাধ্বীর বক্তব্য, ‘গোধন অমৃত সমান।’

এরপর তিনি বলেছেন, আমি ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলাম। নিজেই তা নিরাময় করতে সক্ষম হয়েছি। গোমূত্র এবং পঞ্চগভ্য মিশ্রনে তৈরি আয়ুর্বেদিক ওষুধে আমার ক্যান্সার সেরে গিয়েছে।

তার বিরুদ্ধে ২০০৮ সালে মালগাঁও বিস্ফোরণ কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতী তিনি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। 

 
বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য