Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০০:৪৭
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪
আজীবন সম্মাননায় রানী সরকার ও সৈয়দ হাসান ইমাম
আলাউদ্দীন মাজিদ
আজীবন সম্মাননায় রানী সরকার ও সৈয়দ হাসান ইমাম

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪-এর আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন খ্যাতিমান অভিনয় শিল্পী রানী সরকার ও সৈয়দ হাসান ইমাম। চলচ্চিত্রে অনন্য অবদান রাখায় তাদের এই সম্মাননা জানানো হচ্ছে। জুরি বোর্ড তাদের চূড়ান্ত প্রতিবেদন সম্প্রতি তথ্য মন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছে। বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানায় আগামী সপ্তাহে গেজেট আকারে পুরস্কারের তালিকা প্রকাশ করা হবে। এতে ২৫ ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। ৩ এপ্রিল জাতীয় চলচ্চিত্র দিবসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বসবে পুরস্কার প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আসর। সূত্র মতে ২০১৪ সালের সেরা ছবি বিবেচিত হয়েছে মুরাদ পারভেজ পরিচালিত ‘বৃহন্নলা’। সেরা পরিচালক— ‘মেঘমল্লার’ ছবির জন্য জাহিদুর রহমান অঞ্জন। সেরা অভিনেতা ফেরদৌস [এক কাপ চা], সেরা অভিনেত্রী যৌথভাবে মৌসুমী [তারকাঁটা] ও বিদ্যা সিনহা মিম [জোনাকির আলো], সেরা পার্শ্ব অভিনেতা ড. এজাজ [তারকাঁটা], পার্শ্ব অভিনেত্রী চিত্র লেখা গুহ [জোনাকির আলো], সেরা খলনায়ক তারিক আনাম খান [দেশা দ্য লিডার], সেরা কৌতুক অভিনেতা মিশা সওদাগর [অল্প অল্প প্রেমের গল্প], সেরা গায়ক জেমস [দেশা দ্য লিডার], গায়িকা মমতাজ [নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ], সংগীত পরিচালক ড. সাইম রানা [নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ]। এ ছাড়া রয়েছে টেকনিক্যাল বিভাগে বেশ কটি পুরস্কার।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রবর্তন করা হয় ১৯৭৫ সালে। চলচ্চিত্রের বিভিন্ন শাখায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় এবং এই মাধ্যমে কর্তব্যরতদের উৎসাহিত করতেই তত্কালীন সরকার এই রাষ্ট্রীয় সম্মাননা প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করে। সেই থেকে নিয়মিত এই পুরস্কার দেওয়া হয়ে আসছে। তবে ২০০৮ সাল পর্যন্ত এতে আজীবন সম্মাননার ক্যাটাগরি অন্তর্ভুক্ত ছিল না। ২০০৯ সাল থেকে এই সম্মাননা দেওয়া শুরু হয়। ২০০৯ সালে আজীবন সম্মানে ভূষিত হন অভিনেত্রী সুলতানা জামান। ২০১০ সালে অভিনেতা আনোয়ার হোসেন, ২০১১ সালে নায়করাজ রাজ্জাক, ২০১২ সালে অভিনেতা খলিল, ২০১৩ সালে অভিনেত্রী কবরীকে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়।

২০১৪ সালের জন্য প্রথমবারের মতো একসঙ্গে দুই অভিনয় শিল্পীকে এই সম্মাননায় ভূষিত করার জন্য নাম প্রস্তাব করেছে পুরস্কারের জন্য গঠিত জুরি বোর্ড। জুরি বোর্ড চলচ্চিত্রে এই দুই শিল্পীর সার্বিক অবদানসহ নানা দিক বিবেচনা করে  দুজনকে একসঙ্গে পুরস্কার দেওয়ার জন্য সুপারিশ করে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow