শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০৮

লিটনের বিকল্প কে?

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

লিটনের বিকল্প কে?

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন ১ মার্চ। সম্মেলন উপলক্ষে এরই মধ্যে তোড়জোড় শুরু হয়ে গেছে। পদপ্রত্যাশীদের অধিকাংশ নেতারা ঢাকায় অবস্থান করছেন। পদ পেতে কেন্দ্রে চলছে নেতাদের দৌড়ঝাঁপ। নিজ নিজ শক্তি ও বলয়ে চলছে লবিং-গ্রুপিং। গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছে জেলা সম্মেলন। সেখানে শীর্ষ দুই পদ থেকে বাদ পড়েছেন নেতৃত্বে থাকা দুজনই। এরপরই মূলত আলোচনায়

নগর সম্মেলনে কি বাদ পড়ছেন শীর্ষ দুজন? তাহলে বর্তমান সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের বিকল্প কে? ইতিমধ্যে সভাপতি হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ বজলুর রহমান ও জেলার সদ্য সাবেক সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী। তবে তাদের দুজনকেই তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা লিটনের বিকল্প মনে করছেন না। নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা বলেন, ‘সভাপতি হিসেবে এখনো লিটনের বিকল্প নেতৃত্ব গড়ে ওঠেনি। ফলে তার বিকল্প আমরা ভাবছি না।’ নগর কমিটির সদস্য আহসানুল হক পিন্টু বলেন, ‘যারা সভাপতি হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন, তাদের সঙ্গে নেতা-কর্মীদের যোগাযোগ কেমন, সেটা কেন্দ্র জানে।  সভাপতি হিসেবে তাই আমরা এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের বিকল্প কাউকে ভাবছি না।’ নগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ এ অঞ্চলে শক্তি অর্জন করছে লিটনের নেতৃত্বে। ফলে আগামীতেও নগরের নেতৃত্বে লিটন থাকবেন।’ তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের মতে সভাপতি পদে আলোচনায় এবারও শীর্ষে আছেন বর্তমান সভাপতি ও সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। তিনি ছাড়াও এবার সভাপতি পদপ্রত্যাশীদের তালিকায় নাম তুলেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি ও রাজশাহী-১ আসনের এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী। সভাপতি পদ পেতে চান নগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান বজলুর রহমান। তবে এদের মধ্যে মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি পদে সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের বিকল্প দেখছেন না তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। নগর আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র মতে, কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বসে সম্মেলনের দিনক্ষণ চূড়ান্ত করে শনিবার ঢাকায় গেছেন নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। আর ঢাকায় অবস্থান করে মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বজলুর রহমান সভাপতি পদ পেতে হাইকমান্ডে দৌড়ঝাঁপ করছেন। অবশ্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘নেতৃত্বে কে থাকবে আর কে থাকবে নাÑতার সিদ্ধান্ত নেবেন দলীয় প্রধান। আমরা তার ওপরই আস্থা রাখতে চাই। তিনি যেখানে যাকে যোগ্য মনে করবেন, দায়িত্ব দেবেন।’ এবারের সম্মেলনটি জাঁকজমকপূর্ণ হবে বলে জানান তিনি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর