শিরোনাম
২৪ আগস্ট, ২০২১ ০৯:১২

করোনাভাইরাসের উৎপত্তির রহস্য নিয়ে আমেরিকাকে যা বলল চীন

অনলাইন ডেস্ক

করোনাভাইরাসের উৎপত্তির রহস্য নিয়ে আমেরিকাকে যা বলল চীন

ওয়াং ওয়েনবিন

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। এই ভাইরাসের তাণ্ডবে ইতোমধ্যে বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত হয়েছে ২১ কোটি ৩৩ লাখ ১ হাজার ৬১ মানুষ। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৪ লাখ ৫৩ হাজার ৬৩৯ জনের।

কিন্তু এই মহামারী ছড়িয়ে পড়ার পর দেড় বছরেরও বেশি পেরিয়ে গেলেও ভাইরাসটির উৎস খুঁজে বের করে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে প্রথম থেকেই করোনার উৎপত্তিস্থল হিসেবে চীনকে দায়ী করে আসছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

এবার করোনাভাইরাসের উৎপত্তির বিষয়ে অন্য দেশের প্রতি আঙ্গুল তোলা বন্ধ করতে আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানাল চীন। বেইজিং বলেছে, অন্য দেশকে অভিযুক্ত না করে বরং নিজেদের দেশের জৈব-গবেষণাগারগুলোতে এর উৎপত্তির রহস্য খোঁজ করুন।

সোমবার চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন এসব কথা বলেছেন। তিনি বলেন, গত জানুয়ারি মাসে চীন এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যৌথভাবে যে তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করেছিল তাকে উপেক্ষা করছে আমেরিকা। রিপোর্টে বলা হয়েছিল, কোনও গবেষণাগার থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা খুঁজে পাওয়া যায়নি।

করোনাভাইরাসের মহামারী ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে অন্য দেশকে দোষারোপ করার জন্য চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আমেরিকার সমালোচনা করে বলেন, ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে আমেরিকার নিজেরই ভূমিকা রয়েছে এবং চীনকে দোষারোপ করে আমেরিকা নিজেকে সে দায় থেকে মুক্ত করতে পারবে না।

ওয়াং ওয়েনবিন আরও বলেন, আমেরিকাই প্রথম করোনাভাইরাসের গবেষণা শুরু করে এবং এক্ষেত্রে নিজেকে অপ্রতিদ্বন্দ্বী শক্তি হিসেবে গড়ে তোলে। করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে তারা বিশ্বের যেকোনও দেশের চেয়ে অনেক বেশি অর্থ ব্যয় ও গবেষণা করেছে।

ওয়েনবিন বলেন, গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন খবর থেকে জানা যায়, মার্কিন অধ্যাপক ব্যারিক ১৯৯০ এর দিকে করোনাভাইরাসের গবেষণা শুরু করেন। ফলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বিশেষজ্ঞরা কবে আমেরিকার নর্থ ক্যারোলাইনা ইউনিভার্সিটি এবং ফোর্ট ডেইট্রিকে মার্কিন সামরিক বাহিনীর মেডিক্যাল রিসার্চ ইনস্টিটিউটে তদন্ত করবেন? সূত্র: গ্লোবাল টাইমস

বিডি প্রতিদিন/কালাম

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর