শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৮:৫৯

বগুড়ার ধুনটে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ২

অনলাইন ডেস্ক

বগুড়ার ধুনটে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ২

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় কিশোরী ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান ও ধর্ষকের বাবাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বছরের ওই ঘটনায় ধর্ষিতা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে এবং কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাদের বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেড়েরবাড়ি গ্রামের আজাহার আলী পাইকাড় (৬০) এবং একই গ্রামের তছলিম উদ্দিনের ছেলে ও ধর্ষকের বাবা ফজলুল বারী (৪৫)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়নের বেড়েরবাড়ি গ্রামের ফজলুল বারীর ছেলে মেহেদী হাসান (১৮) প্রতিবেশী এক দিনমজুরের কিশোরী মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু প্রেমে সাড়া দেয়নি মেয়েটি। ২০১৯ সালের ১৫ মে দুপুরে সুযোগ বুঝে মেয়েটি ধর্ষণ করে মেহেদী হাসান। ওই সময় মেয়েটির বাড়িতে কেউ ছিল না। এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে বিচার না পেয়ে তারা বাড়ি ফিরে যায়। এরপর ১৯ ফেব্রুয়ারি সন্তানের জন্ম দেয় ধর্ষিতা। বিষয়টি জানার পর থেকে মেহেদী হাসান পলাতক রয়েছে।

এ ঘটনায় মেয়েটি বাদী হয়ে সোমবার সন্ধ্যায় থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় মেহেদী হাসান ও তার বাবা ফজলুল বারী এবং ইউপি চেয়ারম্যান আজাহার আলী পাইকাড়কে আসামি করা হয়েছে। থানা পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ধর্ষকের বাবা ও ইউপি চেয়ারম্যানকে নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। 

বগুড়ার ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় মেয়েটি বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। এই মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য