শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০২:২৭
প্রিন্ট করুন printer

নিষিদ্ধ ‘বিট কয়েন’ প্রতারণার মূল হোতা আটক

গাজীপুর প্রতিনিধি

নিষিদ্ধ ‘বিট কয়েন’ প্রতারণার মূল হোতা আটক

অনলাইনে নিষিদ্ধ ভার্চুয়াল মুদ্রা ‘বিট কয়েন’ ক্রয়-বিক্রয়সহ মানি লন্ডারিং ও ক্রেডিট কার্ড হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে প্রতারণার মূল হোতাকে আটক করেছে র‌্যাব-১’র সদস্যরা। বুধবার ভোররাতে গাজীপুরের সফিপুর এলাকার বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তির নাম মো. রায়হান হোসেন ওরফে রায়হান (২৯)। তিনি গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার নফিপুর দক্ষিণপাড়া এলাকার আতর আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১’র উপ অধিনায়ক মেজর গাজী আশিকুর রহমান জানান, বাংলাদেশে অনলাইনে ‘বিট কয়েন’ ক্রয় বিক্রয় এবং এর মাধ্যমে অর্জিত অর্থ বিদেশে পাচার করে আসছে কতিপয় ব্যক্তি। এমন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে কতিপয় চক্রকে শনাক্ত করে র‌্যাব-১’র সদস্যরা।

এই কর্মকাণ্ডের মূল হোতা হিসেবে মো. রায়হান হোসেনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। সে বিট কয়েনের মাধ্যমে সাধারণ লোকজনের টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারণাসহ মানি লন্ডারিং, ক্রেডিট কার্ড হ্যাকিং ও বিপুল অঙ্কের বিট কয়েন লেনদেন করে আসছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার ভোর রাতে অভিযান চালিয়ে রায়হানকে গাজীপুরের সফিপুর এলাকার বাসা থেকে আটক করা হয়।

এসময় তার কাছ থেকে নিজের নামে ১৯টি জাল জাতীয় পরিচয়পত্র, ২২টি সিমকার্ড, ২৫ ইউএস ডলারসহ নগদ ১ হাজার ২৭৫ টাকা, বিভিন্ন ব্যাংকের চরটি চেক বই, তিনটি মোবাইল ফোন, একটি অডি গাড়ি ক্রয়-বিক্রয়ের সনদ, তিনটি ভুয়া চালান বই, একটি করে কম্পিউটার, ক্যামেরা, রেকর্ডিং মাইক্রোফোন, হেডফোন, রাউটার, ট্রেড লাইসেন্স, টিন সার্টিফিকেট ও মডেম জব্দ করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা আরও জানান, আটক রায়হান পাকিস্তান, নাইজেরিয়া এবং রাশিয়ান স্মাগলার, ক্রেডিট কার্ড হ্যাকার ও বিট কয়েনের মাধ্যমে অবৈধ পাচারকারীদের সঙ্গে যোগসাজশে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা ও জালিয়াতি করে আসছিল। সে অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট হিসেবে গত জুন মাস হতে তার বিভিন্ন দেশের সহযোগীদের সহায়তায় বিট কয়েনের মাধ্যমে প্রতারণা ও জালিয়াতি করে বিপুল পরিমাণ অবৈধ অর্থের মালিক হয়।

রায়হান প্রায় ৬ মাস আগে ১ কোটি ৭ লাখ টাকায় ঢাকার একটি শোরুম হতে একটি অডি গাড়ি কিনেন। সে জাল পরিচয়পত্র ও ডাক বিভাগের চালান বই তৈরি করে প্রতারণা ও জালিয়াতির কাজে ব্যবহার করতো বলেও জানান তিনি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর