শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩২

যে কোনো পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে

ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার

যে কোনো পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার বলেছেন, মুসলমানদের জন্য ঈদ বড় উৎসব। ঈদে মানুষ গ্রামের বাড়ি যাবেই। ঠেকানো সম্ভব হবে বলে মনে হয় না। কিন্তু যে কোনো পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। এটা বাধ্যতামূলক করতে হবে। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে একান্ত আলাপকালে  তিনি এসব কথা বলেন। অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার বলেন, সংক্রমিত ব্যক্তির সংস্পর্শে গেলেই করোনাঝুঁকি বাড়বে। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ অনুষ্ঠানে আত্মীয়-পরিজনদের সঙ্গে দেখা করতে যায়, তাহলেও মাস্ক পরতে হবে। কারণ কে সংক্রমিত তা কেউ হয়তো জানেন না। কারণ সংক্রমিত হওয়ার পরও অনেকের উপসর্গ বোঝা যায় না। সে কারণে তিন থেকে ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রাখা উচিত। নিজে থেকে দায়িত্ব নিয়ে ভালো থাকতে হবে। 

সাবেক এই উপ-উপাচার্য বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা হয়েছিল। কিন্তু আবার বিশ্বব্যাপী প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশেও কিছুদিন ধরে হঠাৎ দ্রুত সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনেকে হয়তো মনে করছে, যেহেতু টিকা নিয়েছেন, আর কিছু হবে না। স্বাস্থ্যবিধি মানা বন্ধ হয়েছে। করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে হলে আমাদের সচেতনতার বিকল্প নেই। ব্যক্তিসচেতনতাই এই রোগ প্রতিরোধের অন্যতম উপায়। কারণ মানুষ দ্বারাই এই রোগ ছড়ায়। বিকল্প পদ্ধতিতে এই রোগ ছড়ার কোনো কারণ নেই। কাজেই সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

বিশেষজ্ঞ এই চিকিৎসক বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আগের তুলনায় অনেক শক্তিশালী। এবার ধরন পাল্টে আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে এসেছে। মানুষকে আক্রমণ করার শক্তিও বেশি। জনগণ যে শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মানছে তা বলা যাবে না। অনেকেই স্বাস্থ্যবিধি মানতে উদাসীনতা দেখাচ্ছেন। যা সবচেয়ে ক্ষতিকর। আসন্ন ঈদেও জনসচেতনার অভাবে আক্রান্তের হার বৃদ্ধি পেতে পারে।

তিনি বলেন, করোনা আক্রান্ত রোগীকে সবচেয়ে বেশি সুরক্ষিত থাকতে হবে। কারণ মানুষের মাধ্যমেই এই রোগ বেশি ছড়ায়। যিনি করোনায় আক্রান্ত তিনি যদি মাস্ক না পরেন তাহলে রোগ ছড়াবে বেশি। এখানে উল্লেখ করাই ভালো, অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন, কিন্তু প্রথমদিকে বুঝতে পারছেন না। শেষ মুহুর্তে যখন বুঝতে পারেন তখন হয়তো অনেক ব্যক্তিকে আক্রান্ত করেছেন। কারণ তার সঙ্গে যারাই এসেছেন তারাই আক্রান্ত হয়েছেন।

এই বিভাগের আরও খবর