প্রকাশ : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১২:৩৪

পুরুষকর্মীদের জন্য ভিসা বন্ধ করল লেবানন

অনলাইন ডেস্ক

পুরুষকর্মীদের জন্য ভিসা বন্ধ করল লেবানন

লেবাননে বিদেশী কর্মীর ভিসা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়। জনশক্তি রফতানিকারক সব দেশের পুরুষ কর্মীর (ক্যাটাগরি-৩) ভিসা বন্ধ থাকলেও নারীকর্মীর ভিসা আগের মতোই চালু থাকবে। 

লেবাননে বাংলাদেশ দূতাবাস এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। দেশের অর্থ বাইরে যাওয়া ঠেকাতে ও লেবানিজদের কর্মসংস্থান তৈরি করতে এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে দেশটি।

দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয় এক জরুরি বিবৃতিতে জানায়, বিদেশে মুদ্রা স্থানান্তরের পরিমাণ কমাতে এবং লেবানিজদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষে বিদেশী কর্মী আনার আবেদন বন্ধের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। লেবাননের সকল পর্যায়ে প্রতিষ্ঠানে লেবানিজদের নিয়োগ দিতে আহ্বান করা হয়েছে।

লেবানিজদের বেকারত্ব ঘোচাতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। বিদেশী নতুন কর্মীভিসার আর কোনো আবেদন গ্রহণ করা হবে না।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ভিসা বন্ধ হলেও লেবাননে যে সকল প্রবাসী রয়েছে তাদের কোন সমস্যা হবেনা বলে জানিয়েছে দেশটির মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে বৈরুতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর (শ্রম) আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, এ দাফতরিক কোনো আদেশপত্র দূতাবাসের কাছে এখনও আসেনি। মিডিয়ায় এ সংক্রান্ত খবর আসার পর দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে জানতে পারি যে, শুধুমাত্র পুরুষকর্মীর জন্য ভিসা বন্ধ করা হয়েছে। নারী কর্মীর ভিসা চালু রয়েছে।’

এর আগে ১৯৯৯ সালে একবার ভিসা বন্ধ করা হয়েছিল লেবাননে। সেবারও শুধু পুরুষকর্মীর জন্য ভিসা বন্ধ করা হয়। আট বছর বন্ধ থাকার পর ২০০৭ সালে আবার চালু হয়

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালটি লেবাননে চরম মন্দা যাচ্ছে। লেবাননের ব্যাংকগুলোতে ডলার সংকট হওয়ার ডলারের দাম বেড়ে আকাশচুম্বি হয়ে দাঁড়িয়েছে। বেকার হয়ে পড়ছে হাজার হাজার লেবানিজ। মৌলিক দাবি আদায়ে সরকারবিরোধী আন্দোলন চলছে গত দেড় মাস ধরে।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য