শিরোনাম
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৯:৩২

কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলে খুন; পাঁচ আসামির ডাবল মৃত্যুদণ্ড

আদালত প্রতিবেদক:

কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলে খুন; পাঁচ আসামির ডাবল মৃত্যুদণ্ড

প্রতীকী ছবি

ঢাকার কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলে হত্যা মামলার পুনঃবিচারেও পাঁচ আসামির ডাবল মৃত্যুদন্ডের রায় বহাল রেখেছে আদালত। আজ ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক বজলুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। 

মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন মো. নজরুল ইসলাম নজু, মিস্টার ওরফে ছোট মিস্টার, শফিকুল ইসলাম, মো. আরিফ ও মো. মাসুদ। এদের মধ্যে আসামি নজরুল, মিস্টার ও শফিকুল রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর দুইজন পলাতক রয়েছেন।

পুনঃবিচারের রায়ে শাহজাহান নামে একজনকে আহত করার অভিযোগে সকল আসামিকে আরও পাঁচ বছর করে কারাদন্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদন্ডের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৩ সালে ১৩ জুলাই কেরানীগঞ্জে শরীফ হোসেন ও তার সাত বছরের ছেলে খোকনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এছাড়া শরীফের ১২ বছর বয়সী অপর ছেলে শাহজাহানকে কুপিয়ে জখম করা হয়। এই অভিযোগে শরীফের ছেলে আব্দুর রহিম কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা করেন। পরে ২০০৪ সালের ২১ জুলাই ঢাকার পঞ্চম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত মামলাটির প্রথম রায় ঘোষণা করে। ওই রায়েও পাঁচ আসামির ডাবল মৃত্যুদন্ডের আদেশ হয়। ওই রায় ঘোষণার সময় আসামি শফিকুল ইসলাম ছাড়া অপর আসামিরা পলাতক ছিলেন। 

পরে মামলাটি হাইকোর্টে ডেথ রেফারেন্স শুনানির জন্য গেলে হাইকোর্ট নিম্ন আদালতে বিচারের সময় পলাতক থাকা চার আসামির জন্য একজন স্ট্রেট ডিফেন্স আইনজীবী নিয়োগ করে মামলাটি পুনঃবিচারের জন্য নিম্ন আদালতে পাঠায়। পরে ২০০৮ সালের মামলাটি হাইকোর্ট থেকে নিম্ন আদালতে আসার পর পলাতক চার আসামির পক্ষে আদালত স্ট্রেট ডিফেন্স আইনজীবী নিয়োগ করে বিচার শুরু করেন। পুনঃবিচারকালীন আসামি নজরুল ও মিস্টার গ্রেফতার হয়।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর