Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:১৪

অপরাধের মঞ্চ যখন ফেসবুক

ব্যবহারকারীদের অসতর্কতায় হচ্ছে বড় বড় অপরাধ

মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

অপরাধের মঞ্চ যখন ফেসবুক

চট্টগ্রামের একটি স্বনামধন্য কলেজের শিক্ষার্থী তানজিলা খানম (ছদ্মনাম)। ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয় এক ছেলের সঙ্গে। পরবর্তীতে তাদের সেই পরিচয় প্রেমে রূপ নেয়। প্রেম চলাকালে তারা একান্তে কিছু সময় কাটায়। ওই সময় ঘনিষ্ঠ মুহূর্তগুলো মোবাইলে ধারণ করে ‘কথিত’ প্রেমিক। এক সময় তাদের সম্পর্ক ভেঙে গেলে ঘনিষ্ঠ সময়ের মুহূর্তগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি করে প্রেমিক রূপী প্রতারক। মাঝে কিছু টাকাও আদায় করে। বার বার টাকা দাবি করলে তানজিলা এ বিষয়ে সিএমপি’র এক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে এসে মৌখিকভাবে জানায়। পুলিশের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের কথা বলা হলেও তাতে রাজি হননি ওই ছাত্রী। পরে ওসি মধ্যস্থতায় বিষয়টা সুরাহা হয়। শুধু তানজিলা নয়, এভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন ম্যাসেঞ্জার অ্যাপসে অপরাধের শিকার হচ্ছেন বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেরিরিজম ইউনিটের উপ-কমিশনার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, ‘সিএমপি সাইবার অপরাধ নিয়ে যত অভিযোগ আসে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য অংশই হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকেন্দ্রিক। ব্যবহারকারীদের অসর্তকতায় সাইবার অপরাধীদের অপরাধ সংঘটিত করা অনেক সহজ হয়ে যায়। নগরীর আকবর শাহ থানার ওসি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বলেন. সাইবার অপরাধ কেন্দ্রিক যত অভিযোগ আসে তার মধ্যে ফেসবুক ঘিরেই বেশি অপরাধ সংঘটিত হয়। নগরীর সদরঘাট থানার ওসি নেজাম উদ্দিন বলেন, ‘লোকজন সাইবার অপরাধের কথা পুলিশকে জানালেও কেউ সহজে মামলা করতে চায় না। তাই পুলিশ সরাসরি অপরাধীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে না।’


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর