শিরোনাম
প্রকাশ : ৩১ মে, ২০২১ ০৯:০৪
প্রিন্ট করুন printer

করোনার ওষুধ নিয়ে আবারও প্রশ্ন তুললেন রামদেব

অনলাইন ডেস্ক

করোনার ওষুধ নিয়ে আবারও প্রশ্ন তুললেন রামদেব
Google News

বিতর্কের মধ্যেই ভারতের ইয়োগা গুরু রামদেব দাবি করলেন, ৯৮ ভাগ অসুখই সারাতে পারে আয়ুর্বেদ। এছাড়াও তিনি দাবি করেন, তার প্রতিষ্ঠানের উদ্ভাবিত করোনার ওষুধ করোনিলের ট্রায়াল হয়েছিল, তারপরেও তা নিষিদ্ধ হয়েছে।

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮-এ দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি এই মন্তব্য করেন।

তার মতে, ভারতীয় চিকিৎসকদের সবচেয়ে বড় সংগঠন ইন্ডিয়ান মে‌ডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ) ব্রিটিশদের এনজিও যা মানুষের চিকিৎসার নামে আসলে লুঠতরাজ চালায়। তার মতে অ্যালোপ্যাথি পদ্ধতি হিসেবেই দামী, ফার্মা সংস্থাগুলো একরকম লুঠতরাজ চালায়। এর পরেই তার প্রশ্ন, করোনার ওষুধগুলোর কি ট্রায়াল হয়েছে? এই প্রসঙ্গেই তিনি বলেন, করোনার জন্য তিনি যে ওষুধটি বাজারে এনেছিলেন- করোনিল তার বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা হয়েছিল।

রামদেবের কথায়, আমার কার প্রতি কোনও অভিযোগ নেই। এ কথাও সত্যি অ্যালোপ্যাথিতে বহু রোগের আরোগ্য নেই। আবার এটাও মানতে হবে অ্যালোপ্যাথি কোটি কোটি কোটি রোগীর জীবন বাঁচিয়েছে। কাজেই ঘৃণার প্রশ্ন নেই। অ্যালোপ্যাথির সঙ্গে করোনা যুদ্ধে যোগাকেও প্রয়োজনীয় বলে মনে করতে হবে। লড়াইটা লড়তে হবে একসঙ্গে।

আইএমএ মানহানির মামলা করেছে, কথাটা তুলতেই চটলেন রামদেব। বললেন আইএমএ কোনো আইনি সংস্থা না, আবার কোনো গবেষণা সংস্থাও নয়। অশ্লীল কথাবার্তার জন্য মামলা আমার করা উচিত। কিন্তু আমি তা করব না। কারণ আমি উদ্ধত নই, গর্বিতও নই। আমি বাঁচি স্বঅভিমান নিয়ে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর