শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:২২

অপরিকল্পিত ভবন নির্মাণে বাড়ছে ঝুঁকি

পাবনা প্রতিনিধি

অপরিকল্পিত ভবন নির্মাণে বাড়ছে ঝুঁকি

অপরিকল্পিত নগরায়ণে ঝুঁকি বেড়েছে পাবনা শহরবাসীর। প্রায়ই ঘটছে অগ্নিকান্ডের মতো দুর্ঘটনা। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই শহরে যত্রতত্র গড়ে ওঠা বহুতল ভবনের কারণে বড় ধরনের বিপর্যয়ের আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। ১৯৮৯ সালে ‘ক’ শ্রেণিভুক্ত হওয়া এ পৌরসভার নেই মাস্টারপ্ল্যান। সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনায় শহর বিকেন্দ্রীকরণের তাগিদ নগরবিদদের। পাবনা ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, শহরের ব্যস্ত এলাকায় সংকীর্ণ রাস্তার পাশে ভবন নির্মাণ নীতিমালা না মেনে তৈরি হচ্ছে একের পর এক বহুতল আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবন। ৭ তলার বেশি উঁচু যেকোন ভবন নির্মাণে ফায়ার সার্ভিসের অনুমোদনের বাধ্যবাধকতা থাকলেও এর তোয়াক্কা করছেন না কেউ। জানা যায়, ২৭ দশমিক ২০ বর্গকিলোমিটার আয়তনের পাবনা পৌর এলাকায় সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে জনসংখ্যা বাড়লেও সে হারে বাড়েনি রাস্তাঘাট-পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা। বহুতল বিপণিকেন্দ্র ও আবাসিক ভবনের অধিকাংশেরই নেই পার্কিং, অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থা। সড়ক ও ড্রেনের জায়গাও বেদখল হয়ে গেছে বলে অভিযোগ আছে।

গত ১০ বছরে শহরতলিতে গড়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজসহ বেশকিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। চালু হয়েছে রেলপথ। সব মিলে মানুষের চাপে শহরের অপ্রশস্ত সড়কে যানজট এখন নিয়মিত চিত্র। সামান্য বৃষ্টিতেই জলমগ্ন হয়ে পড়ে অধিকাংশ সড়ক।


আপনার মন্তব্য