শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:১০

সংস্কার হয়নি বন্যায় লন্ডভন্ড সড়ক

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

সংস্কার হয়নি বন্যায় লন্ডভন্ড সড়ক

চলতি বছরের ভয়াবহ বন্যায় বগুড়ার সোনাতলা পৌরসভার ১৫টিসহ সাত ইউনিয়নের প্রায় ৩৫টি সড়ক লন্ডভন্ড হয়ে যায়। এরপর কয়েক মাস কেটে গেলেও সড়কগুলো সংস্কার না হওয়ায় দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে যাত্রী-পথচারীরা। সোনাতলায় খানাখন্দে পরিণত হওয়া সড়কের দৈর্ঘ্য প্রায় ৬০ কিলোমিটার।

জানা যায়, বন্যায় সড়কগুলোর কারপেটিং পিচ উঠে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ ৩৫ সড়কে যান চলাচল বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। সড়কগুলো হলো- হরিখালীহাট-হুয়াকুয়া ভায়া চরপাড়া বাসস্ট্যান্ড, শ্যামপুর-হাটশেরপুর, সুজাইতপুর-বালুয়াহাট, চরপাড়া-হাটকরমজা, দক্ষিণ বয়ড়া-ঠাকুরপাড়া, মধুপুর-শালিখা, শালিখা-ফুলবাড়ী ছাতিয়ানতলা, মহেশপাড়া-তেকানীচুকাইনগর, সোনাতলা ঘোড়াপীড়-জুমারবাড়ি, সোনাতলা উপজেলা পরিষদের দক্ষিণ পাশের গেট থেকে কামারপাড়া, কামারপাড়া-সমজাতাইড়, কামারপাড়া-বালুয়াহাট, সোনাতলা বন্দর-শাহবাজপুর ভায়া মহর আলীর বাড়ি, সোনাতলা হাসপাতাল-মাগুরাদহ, সোনাতলার চমরগাছা-নিত্যনন্দনপুর মসজিদ ভায়া কানুপুর, সোনাতলা রেলগেট-চমরগাছা ভায়া ব্যাঙেরঘাট ব্রিজ, খানপাড়া-মোকামতলা, সোনাতলা রেলগেট-বালুয়াহাট, সোনাতলা হাসপাতাল-সরকারবাড়ি, ভেমটিঘাট-বিশুরপাড়া ভায়া নয়াপাড়া, শাহবাজপুর জাহিদুলের বাড়ি থেকে শাহবাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সোনাতলা-গবরজান ব্রিজ সড়ক।  সোনাতলা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নান্নু জানান, ৮৮ সালের পরে এতবড় বন্যা এ অঞ্চলে কোনদিন হয়নি। এমনকি এর আগে কখনো পৌর এলাকায় বন্যার পানিও ওঠেনি। এবারের বন্যায় তার পৌরসভার প্রায় ১৫টি পাকা ও ১০টি কাঁচা সড়ক লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। এতে ক্ষতি হয়েছে প্রায় ২০ কোটি টাকার। উপজেলা প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান জানান, বন্যা পরবর্তী কিছু কিছু সড়ক সংস্কার করার জন্য প্রাথমিকভাবে ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর