শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:২৪

বাংলাদেশ-ভারত যাত্রী বেড়েছে বাড়েনি সেবার মান

দিনাজপুর প্রতিনিধি

বাংলাদেশ-ভারত যাত্রী বেড়েছে বাড়েনি সেবার মান

দিনাজপুরের হিলি সীমান্তের উভয় দিকে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল হওয়ায় দিন দিন এই ইমিগ্রেশন দিয়ে পারাপার বাড়ছে বাংলাদেশ-ভারত পাসপোর্ট যাত্রীদের। বেড়েছে রাজস্ব আয়ও। তবে বাড়েনি সেবার মান। প্রতিনিয়ত ভোগান্তি হচ্ছে পাসপোর্ট যাত্রীদের। ভারত-বাংলাদেশের পাসপোর্ট যাত্রীদের পারাপারে একটি রাস্তা রয়েছে। এই রাস্তা দিয়েই চলাচল করে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রমের পণ্য পরিবহন। সেই সঙ্গে আছে রেল ক্রসিংও। টাকা জমা দেওয়ার কোনো বুথ নেই। আলাদা রাস্তা করাসহ এ সব সমস্যা দূর হলে যাত্রীর সংখ্যা আরও বাড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান। ভারতের বিভিন্ন স্থানের সঙ্গে হিলির সড়ক ও ট্রেন যোগাযোগ ভালো হওয়ায় এই পথে বেশিরভাগ পাসপোর্টযাত্রী ভারতে যাচ্ছেন চিকিৎসার জন্য রোগী, শিক্ষার্থী, ভ্রমণকারী ও ব্যবসায়ীরা। পাসপোর্ট যাত্রীরা বলেন, হিলি ইমিগ্রেশনে যাত্রীর তুলনায় বসার জায়গা পর্যাপ্ত। টয়লেটের অবস্থা শোচনীয়। নেই ভালো মানের কোনো ক্যান্টিন। ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় তাদের। হিলি ইমিগ্রেশন ওসি সেকেন্দার আলী জানান, ব্যাংক কাছে নেই-যেতে হয় দেড় কিলোমিটার দূরে। যাত্রীদের সেবার মান আরও বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি। হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, চলতি অর্থবছরের গত ৬ মাসে এ ইমিগ্রেশন দিয়ে এক লাখ সাড়ে ১৭ হাজার ৫৩৬ জন পাসপোর্টধারী ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যাতায়াত করেছেন। যা থেকে রাজস্ব আয় হয়েছে দুই কোটি ৯৬ লাখ টাকা।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর