Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ মার্চ, ২০১৭ ২২:৩২

ব্যাটিং ধসে বাঁচানো গেল না টেস্ট

মেজবাহ্-উল-হক

ব্যাটিং ধসে বাঁচানো গেল না টেস্ট

হাতে ১০ উইকেট ছিল। গলের পিচও ছিল ব্যাটিংবান্ধব। তারপরও পারলেন না মুশফিকরা। ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ ২৫৯ রানের বড় ব্যবধানে হেরে গেল। আবারও শেষ দিনে স্বপ্নভঙ্গ হয়ে গেল। সর্বশেষ কয়েকটি ম্যাচেই শেষ দিনের ব্যর্থতায় হারতে হয়েছে। নিউজিল্যান্ডের   বিরুদ্ধে ওয়েলিংটন টেস্টে ড্র করার খুব ভালো সুযোগ ছিল। কিন্তু শেষ দিনে ভেঙে পড়ে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ। ভারতের বিরুদ্ধে হায়দরাবাদ টেস্টেও ড্র করার সুযোগ ছিল। কিন্তু সেই শেষ দিনের ধাক্কায় হারতে হয়। তবে গল টেস্টে রুখে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন মুশফিকরা। চতুর্থ দিন শেষে দুই ওপেনার বিনা উইকেটে ৬৭ রান করায় স্বপ্ন দেখছিলেন দেশবাসী। কিন্তু পঞ্চম দিনে যেন আবার সেই ‘ভাঙা রেকর্ড’-ই বাজল। প্রথম ঘণ্টার মধ্যেই ৫ উইকেট হারিয়ে সব শেষ হয়ে যায়। মাত্র ৩৭ রানের মধ্যে সৌম্য সরকার, মুমিনুল হক, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে হারায় বাংলাদেশ। মুশফিকুর রহিম ষষ্ঠ উইকেটে লিটন কুমার দাসকে নিয়ে ৫৪ রানের জুটি গড়ে প্রতিরোধ গড়ে তুললেও তা ম্যাচ বাঁচানোর জন্য যথেষ্ট ছিল না। টি-ব্রেকের আগেই ১৯৭ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। শততম টেস্টের আগে এমন পরাজয় যেন বাংলাদেশকে বিপর্যস্ত করে দিল। ম্যাচ শেষে মুশফিক বলেন, ‘উইকেট যত ভালোই থাক, আর যত ভালো ব্যাটসম্যানই হোক না কেন, যদি মানসিকভাবে ঠিক না থাকা যায় কিংবা মনোসংযোগ ঠিক না থাকে তাহলে একটি বলই আউট হওয়ার জন্য যথেষ্ট। সবার প্রতি সম্মান রেখেই বলছি, আমরা তাদের (শ্রীলঙ্কা) চেয়ে অনেক পেছনে পড়েছিলাম। যেখানে লঙ্কানরা সহজেই ব্যাটিং করল সেখানে আমরা পারলাম না। উপুল থারাঙ্গা তো এই দ্বিতীয় ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেছেন। কিন্তু তাকে তো কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি? একজন অধিনায়ক হিসেবে এটা আমার জন্য খুবই হতাশার।’ মুশফিক বলেন, ‘সৌম্য ও তামিমের লড়াই দেখে আগের রাতে আমরা আত্মবিশ্বাসী হয়েছিলাম। আমি সবাইকে বলেছিলাম, প্রথম এক ঘণ্টা কঠিন হবে। যদি আমরা ভালোভাবে পারি, ম্যাচে এগিয়ে থাকব আমরাই। কিন্তু পারিনি।’ এমন লজ্জার হারের পরও শততম টেস্ট নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন মুশফিক। স্বপ্ন দেখাচ্ছেন মি. ডিপেন্ডেবল! কলম্বোতে নতুন পরিকল্পনা নিয়ে নতুন উদ্দীপনায় লড়াই করবে বাংলাদেশ।


আপনার মন্তব্য