মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে অস্ত্রের কারখানা

কক্সবাজার প্রতিনিধি

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব-১৫। গতকাল ভোরে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এক্সটেনশন ফোরের পাশে অভিযান চালিয়ে ওই কারখানা থেকে দেশি তৈরি ১০টি অস্ত্র, অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এ সময় অস্ত্র কারিগর কুতুপালং সি ব্লকের বাইতুল্লাহ (১৯), তার ভাই হাবিব উল্লাহ (৩২) ও একই ক্যাম্পের জি ব্লকের মোহাম্মদ হাছন (২৪)কে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-১৫ অধিনায়ক লে. কর্নেল খায়েরুল ইসলাম জানান, খবর ছিল দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্র এ ক্যাম্পের গহিন বনে কারখানা তৈরি করে অস্ত্র বানিয়ে আসছে। আর এই কারখানা থেকে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের কাছে অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছিল। এমন তথ্যের ওপর ভিত্তি করে রবিবার মধ্যরাত থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পের এক্সটেনশন ফোরের গহিন পাহাড়ে অভিযান চালায় র‌্যাব। তথ্য অনুযায়ী কারখানাটি শনাক্ত করে সেখানে অভিযান চালাতেই র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুর্বৃত্তরা। চার ঘণ্টার বেশি সময় গোলাগুলির পর কারখানাটি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়। পরে সেখানে চিহ্নিত হয় অস্ত্র কারখানা, জব্দ করা হয় ১০টি অস্ত্র, বিপুল পরিমাণ অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম। আটক করা হয় তিন রোহিঙ্গা অস্ত্র কারিগরকে। তিনি জানান, গোলাগুলির ফাঁকে বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসী পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। গ্রেফতার তিনজনের চিকিৎসা শেষে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে উখিয়া থানায় সোপর্দ করা হবে।

সর্বশেষ খবর