Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৮ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ মার্চ, ২০১৯ ২২:২২

পোলো টি-শার্টে নতুনত্ব

পোলো টি-শার্টে নতুনত্ব
♦ মডেল : দিগন্ত সামাদ ♦ পোশাক : ইজি ♦ ছবি : টুটুল নেছার
সকাল গড়িয়ে দুপুর। দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা। আবহাওয়া যেমন-ই হোক, শীতকালীন তীব্র ঠাণ্ডা ছাড়া সারা বছরই পরনে শোভা বাড়ায় রকমফের পোলো টি-শার্ট। ফ্যাশন ট্রেন্ডে এই টি-শার্ট এখন ভীষণ স্মার্ট ওয়্যারড্রোব।
পোলো টি-শার্ট; হরেক রং, নানা ঢঙ। যেমন আরামদায়ক তেমনি ফ্যাশনেবলও। পরা যায় যে কোনো বয়সেই। ক্যাজুয়াল হোক বা ফরমাল ড্রেসিং- পোলো টি-শার্ট কখনই ফ্যাশন স্টেটমেন্টের বাইরের অংশ নয়। বিস্তারিত জানাচ্ছেন- এ কে রাসেল

 

পোলো টি-শার্ট হলো এক ধরনের কলারবিশিষ্ট জামা। এর প্ল্যাকেটে শার্টের ধরন অনুযায়ী দুই থেকে তিনটি বোতাম থাকে। এ ছাড়াও অনেক সময় সঙ্গে থাকে একটি ঐচ্ছিক পকেট। পোলো  টি-শার্টের ব্যাকরণে হয়তো এমনভাবেই সংজ্ঞায়িত করা হয়! কিন্তু বসন-ভূষণে আরামের  দিক বিবেচনা করলে পোলো টি-শার্টের সংজ্ঞার প্রয়োজন হয় না। শীতকালীন ঠাণ্ডা ছাড়া পোলো টি-শার্ট নিঃসন্দেহে ভীষণ স্মার্ট একটি ওয়্যারড্রোব। এটি যেমন আরামদায়ক তেমনি ফ্যাশনেবল। পরা যায় যে কোনো বয়সেই। ক্যাজুয়াল হোক বা ফরমাল ড্রেসিং, পোলো টি-শার্টের রঙের বৈচিত্র্যেও যে কেউ হয়ে উঠতে পারেন স্টাইলিশ।

 

পোলোর ডিজাইনে বৈচিত্র্য

ফ্যাশন দুনিয়ায় অন্যতম স্টেটমেন্ট পোলো টি-শার্ট। শুরুর দিকে টেনিস শার্ট এবং গলফ শার্ট নামেও পরিচিত পেলেও বর্তমানে সর্বজনিন পোলো টি-শার্ট নামে জনপ্রিয়। এটি সাধারণত নিট কাপড়ে তৈরি হলেও ব্র্যান্ডভেদে কিছু কিছু পোলো টি-শার্টের কাপড় এবং বোতামে রয়েছে ভিন্নতা। এই টি-শার্টের কাপড়ের উপাদান হিসেবে প্রাধান্য পায় তুলা বা কৃত্রিম লিলেনের ফাইবার। পোলো টি-শার্ট খুব বেশি এক্সপেরিমেন্টাল পোশাক না হলেও এতে মাঝে মাঝে ঐচ্ছিক পকেট দিয়ে থাকেন ডিজাইনাররা। বাজারে এক কালারের পোলো টি-শার্ট রমরমা ব্যবসা করলেও পিছিয়ে থাকে না স্ট্রাইপের ডিজাইন করা পোলো টি-শার্টও। স্ট্রাইপ ডিজাইন করা পোলো টি-শার্টগুলোর ডিজাইন পোশাকে আনে বৈচিত্র্যতা।

পোলোর নানা ঢং, হরেক রং

পোলো টি-শার্টের দুনিয়া খুব বেশি বড় নয়। কোটেশন এবং প্রিন্টিং কারসাজিতে পোলোর জমিন পূর্ণতা পায়। স্ট্রাইপ ডিজাইনের পোলো টি-শার্ট এথনিক লুক নিয়ে আসে সহজেই। যা পরলে যে কোনো ফেস্টে ভিড়ের মধ্যেও আলাদা করে চোখে পড়তে বাধ্য। কোনো কোনো পোলো টি-শার্টে তিন থেকে চারটি বোতাম দেখা যায়। কোনোটিতে দেখা যায় দুই বা তিনটি বোতাম। বোতামহীন পোলো টি-শার্টের কদরও বেশ। বর্তমান বোতামের ডিজাইন বৈচিত্র্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে মেটালের বোতাম। নতুনত্ব হিসেবে গলা এবং কাঁধে যোগ করা হচ্ছে বাড়তি সব নান্দনিক নকশা। বাজারে সাধারণত লাল, নীল, কলাপাতা সবুজ, বাসন্তী, মেজেন্টা রঙের পোলো টি-শার্ট বেশ চলছে। উজ্জ্বল রঙের পাশাপাশি পোলো টি-শার্টে রয়েছে সাদা, ঘিয়া, বাদামি, হালকা লেবুররংসহ নানা শুভ্র রংও। মন মাতানো সব রঙের মধ্যে পেয়ে যাবেন স্ট্রাইপও।

 

গরমে আরামের পোলো

গরমে আরাম বলতেই ফ্যাশন বোদ্ধারা ফেব্রিকের তালিকায় প্রথমেই রাখেন নিট ফেব্রিক। এই ফেব্রিকটি তৈরিতে ব্যবহৃত হয় সাধারণত তুলা বা কৃত্রিম লিলেনের ফাইবার। গার্মেন্ট শিল্পের প্রসার এবং দেশীয় পোশাকশিল্পের জাদুর পরশ এখানে রয়েছে। তবে কেনার আগে ১১০ থেকে ১৫০ জিএসএমের নিটেড শার্ট বেছে নেওয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। এতে কাপড়ের ভিতর দিয়ে সহজে বাতাস চলাচল করতে পারবে। সুতি কাপড় পোলো যেমন আরামদায়ক তেমনি তাপ নিরোধক। বেশি তাপ শোষণ করে বলে গরমের সময়টাতে কালো রং এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। হরেক রং আর নানা ঢঙের এসব পোলো টি-শার্ট সব বয়সীই পরতে পারে। শুধু ব্যক্তিত্ব ও রুচি অনুযায়ী নির্দিষ্ট বেছে নিলেই হলো।

 

মনের মতো ফ্যাশন

রং ও ডিজাইন বৈচিত্র্য থাকায় সহজেই প্যান্ট কিংবা জুতার সঙ্গে ম্যাচিং করে পোলো টি-শার্ট পরা যায়। ক্যাজুয়াল লুকে পোলো টি-শার্টের সঙ্গে জিন্সের প্যান্ট বেশি মানায়। সেমি ফরমাল লুকের সঙ্গে পরতে পারেন গ্যাবার্ডিন বা সুতি প্যান্ট। তরুণদের জনপ্রিয় ফ্যাশন ব্র্যান্ড ইজির পরিচালক তৌহিদ চৌধুরী বলেন, ‘সুতি ও লিনেন কাপড়ের পোলো টি-শার্ট বেশি চলছে। তা ছাড়া ব্যায়াম করা পেশিবহুল বাহু যাদের, তারা হাতায় রাবার দেওয়া কাফের পোলো টি-শার্ট বেছে নিতে পারেন। আকর্ষণীয় দেখাবে। ক্রেতারাও গরমের কথা ভেবেই বেছে নিচ্ছেন এমন কাপড়। যে গড়নের শরীর হোক না কেন, ঢিলেঢালা পোলো টি-শার্ট না পরে স্মার্টনেস পেতে বেছে নিন ফিট কিংবা সেমি ফিট পোলো টি-শার্ট। আর আমাদের হাউসে (ইজিতে) তরুণদের জন্য রয়েছে সব ধরনের পোশাকের বৈচিত্র্যময় কালেকশন।

 

কোথায় কেমন

ব্র্যান্ডভেদে পোলো টি-শার্টের দামে রয়েছে ভিন্নতা। ব্র্যান্ডের পোলো টি-শার্ট কিনতে চাইলে গুনতে হবে ৯৫০ থেকে ৩০০০ টাকা। নন-ব্র্যান্ডের পোলো টি-শার্ট পাওয়া যাবে মাত্র ৩৫০ থেকে ৮০০ টাকার মধ্যেই। ভালো মানের পোলো টি-শার্ট কিনতে যেতে পারেন ইজি, প্লাস পয়েন্ট, লা রিভ, ইনিফিনিটি, অঞ্জনসসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে। একটু কম দামে কিনতে যেতে পারেন আজিজ সুপার মার্কেট, বঙ্গবাজার এবং নিউমার্কেটে।


আপনার মন্তব্য