শিরোনাম
প্রকাশ : ২ আগস্ট, ২০২০ ১৪:৪৮

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত বেড়ে ৫৪ হাজার ৭৩৬!

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত বেড়ে ৫৪ হাজার ৭৩৬!

ভারতে গত কয়েক দিন ধরেই সংখ্যাটা ৫০ হাজারের কোটায় ঘোরাফেরা করছে। দৈনিক নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধিতে বৃহস্পতিবার ৫২ হাজার, শুক্রবার ৫৫ হাজার শনিবার ৫৭ হাজারের পর রবিবার ৫৪ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। 

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫৪,৭৩৬ জন আক্রান্ত হওয়ায় দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যাটা ১৭ লাখ ছাড়িয়ে গেল। বর্তমানে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ লাখ ৫০ হাজার ৭২৪। মৃত্যু হয়েছে আরও ৮৫৩ জন করোনা রোগীর। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে করোনায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৫,৬৭,৭৩০। সুস্থ হয়েছেন ১১,৪৫,৬৩০ জন। মৃত ৩৭,৩৬৪।

মৃত্যুর নিরিখে স্পেন, ফ্রান্স, ইতালিকে পিছনে ফেলে বিশ্বের পঞ্চম স্থানে রয়েছে ভারত। গোটা বিশ্বে সংক্রমণের নিরিখে এই মুহূর্তে শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। সেখানে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ লাখ ২০ হাজার ৪৪৪। 

দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৭ লাখ ৭ হাজার ৮৭৭ জন। সেই তালিকায় ভারত রয়েছে তৃতীয় স্থানে। যদিও মৃত্যুর হার ওই সব দেশগুলোর তুলনায় ভারতে অনেকটাই কম বলে দাবি করা হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার জেরে মৃত্যু হয়েছে ৮৫৩ জনের। শুরু থেকেই মহারাষ্ট্র সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে। ইতোমধ্যে সেখানে চার লাখ ছাড়িয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে মোট আক্রান্ত দু’লাখ ৪৫ হাজার ৮৫৯ জন। গত কয়েক দিন ধরে রোজ প্রায় দশ হাজার করে নতুন সংক্রমণ হচ্ছে অন্ধ্রপ্রদেশে।

পশ্চিমবঙ্গে করোনার দাপট অব্যাহত। রেকর্ড সংখ্যক টেস্টের দিনই আক্রান্ত এবং মৃত্যুর নয়া রেকর্ড সৃষ্টি হল রাজ্যে। যার জেরে শনিবার মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৭২ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়ে গেল। আর গত গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার বলি হয়েছেন আরও ৪৮ জন। অর্থাৎ প্রতি ৩০ মিনিটে রাজ্যে ১ জন করে করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে।

তবে এতো কিছুর মধ্যেও সুস্থতার হার বৃদ্ধি পাওয়ায় খানিকটা স্বস্তিতে রয়েছে ভারত। দেশে এখনও পর্যন্ত ১১ লাখ ৪৫ হাজার ৬২৯ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অর্থাৎ মোট আক্রান্তের ৬৫.৪৪ শতাংশই সেরে উঠেছেন চিকিৎসায়। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫১ হাজার ২৫৫ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর