শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৫ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০২১ ২৩:৩১

শস্যচিত্র দেখে অনুপ্রাণিত হবে : রাজ্জাক

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

শস্যচিত্র দেখে অনুপ্রাণিত হবে : রাজ্জাক
Google News

ফসলের মাঠে ফুটিয়ে তোলা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি দেখে আগামী প্রজন্ম তাঁর আদর্শে অনুপ্রাণিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, অসাধারণ এ শিল্পকর্মটি অচিরেই গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে অন্তর্ভুক্ত হয়ে বাঙালির নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করবে। গতকাল বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বালেন্দা গ্রামে ১০০ বিঘা জমির গাঢ় বেগুনি ও সবুজ ক্যানভাসে আঁকা বিশ্বের সর্ববৃহৎ ‘শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধু’ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন। ড. মো. আবদুর রাজ্জাক ‘শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধু জাতীয় পরিষদের’ প্রধান উপদেষ্টা। বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় ১০০ বিঘা আয়তনের ধানখেতে ফুটিয়ে তোলা ‘শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধু’ এখন গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে বিশ্বের সর্ববৃহৎ শস্যচিত্র হিসেবে স্বীকৃতির প্রক্রিয়ায় রয়েছে। ‘শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধু’র আয়তন ১২ লাখ ৯২ হাজার বর্গফুট। এর দৈর্ঘ্য ৪০০ মিটার এবং প্রস্থ ৩০০ মিটার। গাঢ় বেগুনি ও সবুজ ধানের চারায় ফুটে উঠেছে জাতির জনকের সুস্পষ্ট অবয়ব। কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষে  আমরা বঙ্গবন্ধুকে ফসলের খেতে, বিশ্বের সর্ববৃহৎ শস্যচিত্রে তুলে ধরেছি। এটা একটা অসাধারণ শিল্পকর্ম। এর মাধ্যমে দেশের সব মানুষ সশরীরে, মিডিয়া বা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে শস্যখেতে দেখতে পারবেন। তিনি বলেন, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ একটি মহাকাব্য। আর এ মহাকাব্যের মহানায়ক হলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে স্বাধীনতাযুদ্ধ পর্যন্ত সব আন্দোলনে-সংগ্রামে বঙ্গবন্ধু ছিলেন মূল সংগঠক ও অবিসংবাদিত নেতা। মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু একটি গণতান্ত্রিক, অসাম্প্রদায়িক, ন্যায় ও সমতার ভিত্তিতে একটি জাতিরাষ্ট্র গঠন করতে চেয়েছিলেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষে এটা আনন্দের কথা যে, আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পথেই অগ্রসর হচ্ছি। বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনুর সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য সাহাদারা মান্নান, কৃষি সচিব মো. মেসবাহুল ইসলাম, বিএডিসির চেয়ারম্যান অমিতাভ সরকার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. আসাদুল্লাহ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।