শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৯ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ মে, ২০২১ ২৩:০৪

নদের মাটি কাটা নিয়ে বিরোধে এলাকাছাড়া কয়েক পরিবার

ফরিদপুর প্রতিনিধি

নদের মাটি কাটা নিয়ে বিরোধে এলাকাছাড়া কয়েক পরিবার
Google News

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার পশ্চিম চুমুরদি গ্রামে কুমার নদের মাটি কাটা নিয়ে বিরোধের জেরে কয়েকজনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আবারও হামলার ভয়ে এলাকা ছেড়েছে পাঁচ পরিবার। এ ঘটনা নিয়ে পাল্টাপাল্টি মামলাও হয়েছে। এলাকাবাসী ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পশ্চিম চুমুরদী গ্রামের ওহিদ মিয়ার সঙ্গে বাবুল ও বাদল মাতুব্বরের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলছে। সম্প্রতি সরকারিভাবে কুমার নদ খনন শুরু হয়। খনন করা মাটি রাখা হয় নদের উভয় পাড়ে। ওই মাটি বাবুল গংরা বিভিন্ন জনের কাছে বিক্রি করে আসছেন। এতে বাধা দেন ওহিদ মিয়া ও তার লোকজন। এর জেরে গত ১ মে প্রতিপক্ষের লোকজন ওহিদ মিয়ার ভাতিজা রবিউলকে বেদম মারপিট করে। পরবর্তীতে তারা ওহিদের বাড়িতে হামলা লুটপাট চালায়। ওহিদ মিয়ার সমর্থক হিলাল তার নিজ জমিতে গেলে প্রতিপক্ষের সমর্থকরা তাকে কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় গত ৩ মে ভাঙ্গা থানায় ১৮ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। মামলার পর আসামিরা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। তারা ওহিদ মিয়াকে মামলা তুলে নিয়ে নানাভাবে চাপ প্রয়োগ করে। এতে কাজ না হওয়ায় ওহিদ মিয়াসহ তার কয়েক সমর্থকের বিরুদ্ধে দেওয়া হয় পাল্টা মামলা। মামলা এবং প্রতিপক্ষের ফের হামলার ভয়ে গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ওহিদ মিয়াসহ কয়েকটি পরিবার। ওহিদ মিয়া বলেন, আমিসহ আমার কয়েক সমর্থক পরিবার পরিজন নিয়ে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছি। যেখানে পালিয়ে রয়েছি সেখানের খোঁজ পেলে তারা আমাদের ওপর হামলা চালাতে পারে। এ জন্য ফরিদপুরের পুলিশ সুপারের কাছে আমাদের জীবনের নিরাপত্তার দাবি জানাচ্ছি। ওহিদ মিয়ার অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে বাবুল মাতুব্বর বলেন, তারা আমাদের লোকজনকে মারপিট করেছে। এ বিষয়ে আমরা থানায় মামলা দিয়েছি। আমরা কাউকে হুমকি দেইনি। উল্টো তারাই আমাদের হয়রানি করছে। ভাঙ্গা থানা পুলিশ জানায়, কুমার নদের মাটি নিয়ে দুই পক্ষে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষ মামলা করেছে।

এই বিভাগের আরও খবর