শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ১৮:৫৭
প্রিন্ট করুন printer

বড়লেখায় চা-বাগানে হত্যাকাণ্ড; আহত আরেকজনের মৃত্যু

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

বড়লেখায় চা-বাগানে হত্যাকাণ্ড; আহত আরেকজনের মৃত্যু
কানন বালা

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার পাল্লাথল চা বাগানে প্রতিবেশীর দায়ের কোপে গুরুতর আহত হওয়া কানন বালাও (৩৪) অবশেষে মারা গেছেন। সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

দুপুরে বড়লেখার উত্তর শাহবাজপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোশাররফ হোসেন এবং পাল্লাথল চা-বাগানের হ্যাড ফ্যাক্টরি ক্লার্ক অঞ্জন দাস কানন বালার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত রবিবার (১৯ জানুয়ারি) ভোরে প্রতিবেশী নির্মল কর্মকারের দায়ের কোপে কানন বালা গুরুতর আহত হয়েছিলেন। একই ঘটনায় নিহত হন কাননের স্বামী ও মেয়েসহ চারজন। 

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত রবিবার (১৯ জানুয়ারি) ভোর রাতে উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউপির পাল্লাথল চা বাগানে পারিবারিক কলহের জের ধরে নির্মল কর্মকার দা দিয়ে কুপিয়ে তার স্ত্রী জলি বুনার্জিকে হত্যা করে। এসময় জলিকে বাঁচাতে গিয়ে নির্মলের দায়ের কোপে নিহত হন জলির মা লক্ষ্মী বুনার্জি। স্ত্রী ও শ্বাশুড়িকে হত্যা করেও ক্ষান্ত হয়নি নির্মল। তাদের বাঁচাতে এসে ঘাতকের দায়ের কোপে নিহত হন প্রতিবেশি বসন্ত বক্তা এবং বসন্তের মেয়ে শিউলী বক্তা। এসময় গুরুতর আহত হন বসন্তের স্ত্রী কানন বালা। 

ঘটনার সময় পালিয়ে বেঁচে যায় জলির নয় বছরের শিশুকন্যা চন্দনা বুনার্জি। একে একে সবাইকে হত্যার পর নিজেকেও শেষ করে দেয় নির্মল। প্রথমে নিজেই নিজের মাথায় দা দিয়ে কোপ দেয়। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে পরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে সে।

সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতবস্থায় কানন বালাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে এবং নিহতদের লাশ মর্গে পাঠায়। এই ঘটনায় রবিবার রাতেই পাল্লাথল বাগানের সহকারী ব্যবস্থাপক জাকির হোসেন বাদী হয়ে  থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন।

পাল্লাথল চা-বাগানের হ্যাড ফ্যাক্টরি ক্লার্ক অঞ্জন দাস সোমবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে বলেন, এই ঘটনায় পুরো বাগানবাসী স্তব্ধ।  একসাথে এতজনের মৃত্যু, ভাবতেই কষ্ট লাগছে। সবচেয়ে বেশি খারাপ লাগছে, নির্মলের হাত থেকে তার স্ত্রী জলিকে বাঁচাতে গিয়ে একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি।

বড়লেখার উত্তর শাহবাজপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোশাররফ হোসেন বলেন, কানন বালা চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে আজ সকালে মারা গেছেন। সিলেট কতোয়ালী থানা পুলিশ নিহতের লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করবে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশটি পাল্লাথল চা-বাগান কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম আল ইমরান সোমবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে বলেন, পাঁচজনের মৃত্যুর পর আহত আরেক নারী আজ সকালে মারা গেছেন। 

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১২:৩৪
প্রিন্ট করুন printer

প্রতিবন্ধী স্কুলে গোপালগঞ্জ পৌর-মেয়রের স্কুলভ্যান উপহার

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রতিবন্ধী স্কুলে গোপালগঞ্জ পৌর-মেয়রের স্কুলভ্যান উপহার

গোপালগঞ্জ পৌরসভার জেন্ডার এ্যাকশন প্লান (জিএপি) এর আওতায় শহরের মহিলা অঙ্গন প্রতিবন্ধী স্কুলকে একটি স্কুল ভ্যান প্রদান করেছেন পৌরসভার মেয়র কাজী লিয়াকত আলী।

সোমবার দুপুরে পৌরসভা চত্বরে মহিলা অঙ্গন স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক অনুরেখা হালদারের নিকট স্কুল ভ্যান গাড়িটি হস্তান্তর করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মো. আবু সিদ্দিক সিকদার, সাধারণ সম্পাদক শেখ রফিকুল ইসলাম মিটু, পৌরসভার সচিব কেজি এম মাহমুদ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ, মহিলা কাউন্সিলর খাদিজা বেগম, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. জুলফিকর আলী মোল্লা প্রমুখ। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:২৪
প্রিন্ট করুন printer

নোয়াখালীতে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীতে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে একদল দুর্বৃত্ত। সোমবার (২৫ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ শরীফপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। পরে আহত যুবলীগ নেতাকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

আহত আব্দুল মান্নান (৩৪) উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শরীফপুর গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে।

বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রুহুল আমিন সোমবার রাত পৌনে ১২টার দিকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি আরও জানান, বেগমগঞ্জ উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের ন্যায্যমূল্য বাজার নামক স্থান থেকে ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা আব্দুল মান্নান মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। বাড়ি যাওয়ার পথে পেছন থেকে অজ্ঞাত ৪/৫ জন দুর্বৃত্ত কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে আব্দুল মান্নানকে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করে।

বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত এই হামলার কোনো কারণ জানা যায়নি। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:০৯
প্রিন্ট করুন printer

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সোমবার বিকেলে হওয়া পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। সদর উপজেলার ভাটপাড়া ও সরাইল উপজেলার কালিকচ্ছ এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে নাটাই উত্তর ইউনিয়নের ভাটপাড়া গ্রামের মৃত সোহরাব মিয়ার ছেলে পথচারি আবু সায়েদ (৮০) নিজ বাড়ির সামনে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত হন। সরাইলে নিহত সদর উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামের মনু মিয়া ছেলে হাকিম মিয়া (২৪) পিকআপ উল্টে নিহত হন।

স্থানীয়রা ও নিহতের স্বজনেরা জানান, বৃদ্ধ আবু সায়েদ জেলা শহর থেকে নিজ বাড়ি ভাটপাড়া গ্রামে যাচ্ছিলেন। গাড়ি থেকে নেমে রাস্তা পারাপারের সময় পিছন দিক থেকে একটি মাইক্রোবাস তাঁকে ধাক্কা দেয়। এতে সড়কে তিনি ছিটকে পড়েন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ২৫০শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়। 

অন্যদিকে, সরাইল উপজেলার সূর্যকান্দি থেকে পিকআপ ভ্যান নিয়ে চালক হাকিম মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের দিকে আসছিলেন। পথে সূর্যকান্দি তিনরাস্তার মোড়ে আসার পর পিকআপটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি গাছের সাথে ধাক্কা লাগে। এতে চালক হাকিম গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর  হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে পিকআপ চালক হাকিম মারা যান।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. নাজমুল হক ও ডা. খান রিয়াজ মুহাম্মদ জিকু ওই দুইজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে বলে তারা জানান।
 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ২

চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ২

চাঁদপুরের কচুয়ায় মোটরসাইকেল ও ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও ২ জন আহত হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় হাজীগঞ্জ-গৌরীপুর সড়কের ডুমুরিয়া নিলামপাড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেল আরোহী কামরুল ইসলাম সবুজ (২৪)। এছাড়া আরিফ হোসেন (২৫) ও ইব্রাহীম হোসেন (১৯) মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত হয়েছে। 

স্থানীয়রা গুরুতর আহতাবস্থায় তাদের উদ্ধার করে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কামরুল ইসলাম সবুজকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত আরিফ ও ইব্রাহীমকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। 

নিহত কামরুল ইসলাম সবুজ মোহাম্মদ গ্রামের আব্দুল মোতালেব এর ছেলে ও আহত ইব্রাহীমের গ্রামের বাড়ি হাজীগঞ্জ উপজেলার পাতানিশ ও আরিফ হোসেন এর গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মুদাফ্ফরগঞ্জ এলাকায়।

সূত্রে জানা গেছে, মোটরসাইকেল চালক আহত ইব্রাহীম হোসেন তার অপর দুই বন্ধু কামরুল ও আরিফকে নিয়ে তার নানার বাড়ি কচুয়া উপজেলার তুলাতলী গ্রামে এক জানাজা অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে হাজীগঞ্জের উদ্দেশে রওয়ানা হয়। পথিমধ্যে নিলামপাড়া এলাকায় গৌরীপুরমুখী মালবাহী ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে কামরুল ইসলাম সবুজ নিহত হয়।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:০৯
আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১২:২৮
প্রিন্ট করুন printer

নোয়াখালী পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালী পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি

নোয়াখালীর মাইজদীতে একই স্থানে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সভা আহ্বান করায় প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করেছে। গতকাল সোমবার জেলা প্রশাসন জানায়, উভয় পক্ষের কর্মসূচি পালন বন্ধ রাখার লক্ষ্যে মঙ্গলবার (আজ) সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত নোয়াখালী পৌরসভা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি থাকবে।

জানা যায়, জেলা শহর মাইজদীর শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে নোয়াখালী পৌর মেয়র শহীদ উল্যা খাঁন সহেল আওয়াম লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে কটুক্তি করার প্রতিবাদে সমাবেশ আহ্বান করে / একইস্থানে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, নোয়াখালী-৪ আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী সমর্থিত নেতারা সমাবেশ ডাকে। 

এতে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে শান্তি ভঙ্গের আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি
করেন। নোয়াখালী জেলা প্রশাসন ১৪৪ নোয়াখালী পৌরসভা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারির সত্যতা নিশ্চিত করেন।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর