শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ আগস্ট, ২০২০ ২০:৩৫

বগুড়ায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া:

বগুড়ায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি
ফাইল ছবি

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় কয়েক দফা বন্যার পর এখন পরিস্থিতির বেশ উন্নত হতে শুরু করেছে। বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়া এলাকা থেকে আবারো পানি কমে যেতে শুরু করেছে। বানভাসিরা ঘরে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছে। 

এদিকে কৃষকের ৬৬ কোটি ৯৭ লাখ ৫৬ হাজার টাকার ফসলের ক্ষতি হয়েছে বলে বলছেন সারিয়াকান্দি কৃষি কর্মকর্তারা। বগুড়ায় যমুনা নদীতে পানি কমেছে। বন্যার পানি কমতে থাকায় সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি উন্নয়নের পথে যাচ্ছে। দুই একটি পরিবার ঘরে ফিরেছে। এদিকে রবিবার যমুনা নদীর পানি কমে বিপদসীমার অনেক নিচে দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বিভিন্ন আবাসিক এলাকা থেকে পানি কমতে শুরু করেছে। 

বগুড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান জানান, বগুড়ায় যমুনা নদীর পানি কমে বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আনুমানিক ৩০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যার পানি কমে যাওয়ার কারণে কিছু পরিবার নিজ নিজ ঘরে ফিরতে শুরু করেছে। 
ঈদের আগে বগুড়ার যমুনা নদী সংলগ্ন সারয়িাকান্দি, সোনাতলা ও ধুনট উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়। গত কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে  আসা পাহাড়ী ঢলে বগুড়ার সারিয়াকান্দিসহ যমুনা তীরবর্তী সোনাতলা, ও ধুনট উপজেলার  প্রায় ৩২ হাজার ৩৪২ পরিবারের ১ লাখ ২৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়ে। প্রবল বর্ষণও উজানের ঢলে বগুড়ায় যমুনা ও বাঙালী নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তৃতীয় দফা বন্যা দেখা দেয়।

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, বন্যায় উপজেলার ৬ হাজার ৩ শ ৬৪ হেক্টর জমির পাট, আউশ ধান, ভুট্টা, আমন বীজতলা, মরিচ, রোপা আমন ও শাক সবজির আবাদ বন্যায় আক্রান্ত হয়ে নষ্ট হয়ে যায়। এতে করে কৃষকদের ৬৬ কোটি ৯৭ লক্ষ ৫৬ হাজার টাকার ফসলের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য